স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: অবশেষে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর জেলা প্রশাসনের মৌখিক অনুমতি নিয়ে এবং সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নীতি মেনে চলার ভিত্তিতে স্বল্প পরিসরে রাঙামাটির পর্যটন স্পটগুলো খোলা হয়েছে। মঙ্গলবার (০৪আগষ্ট) বিকেলে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন, রাঙামাটি পর্যটন কমপ্লেক্স এর ব্যবস্থাপক সৃজন বিকাশ বড়ুয়া।

তিনি বলেন, কোভিট ১৯ এর কারণে সরকারি নির্দেশনা মেনে গত ১৮ মার্চ বন্ধ করা হয়েছিলো পর্যটন কেন্দ্র। বর্তমানে সীমিত আকারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটনকেন্দ্র খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইতোমধ্যেই কক্সবাজার,চট্টগ্রামসহ অনেক পর্যটন কেন্দ্র চালু করা হয়েছে।

সৃজন বিকাশ বড়ুয়া জানান, দীর্ঘ চারমাস বন্ধ থাকার কারণে প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে যোগ করেন।

তিনি আরও জানান, আশা রাখছি কয়েকদিনের মধ্যে পরিস্থিতি বোঝা যাবে। তবে কাউকে মাস্ক ছাড়া প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কাজ করবে।

এদিকে সরেজমিনে গেলে দেখা যায়, পর্যটন স্পটগুলো খুলে দেওয়া হলেও জেলার বাইরে কোন দেশী-বিদেশী পর্যটকের সমাগম ঘটেনি। স্থানীয়রা কয়েকজন মিলে সীমিত আকারে ঘুরতে দেখা গেছে।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক (ডিসি) একেএম মামুনুর রশীদ বলেন, রাঙামাটি পর্যটন করপোরেশন এর ব্যবস্থাপক পর্যটন কেন্দ্র খোলার অনুমতি চেয়েছিলো। তখন স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলার অনুমতি প্রদান করি। তবে তাদের এও বলে দিয়েছি, সামাজিক দূরত্ব বজার রাখা এবং মাস্ক পড়ে যেন পর্যটকরা আসে।

গত ১৮মার্স থেকে করোনা মোকাবিলায় জেলা প্রশাসন রাঙামাটির সকল পর্যটন স্পট বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করে এবং পর্যটকদের আগমনে নিষেধাজ্ঞা জারী করে।