॥ আলীকদম প্রতিনিধি ॥

গতকাল বুধবার বান্দরবানের আলীকদমে দুইটি ইট ভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালত ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশে দুইটি ইট ভাটার ড্রামসিট চিমনী ভাঙ্গা হয় এবং ভাটায় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা পানি ঢেলে দেয়।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাজিমুল হায়দার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তর, কক্সবাজার কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক মোঃ কামরুল হাসান।

সরেজমিন জানা গেছে, চট্টগ্রামের রাউজান নিবাসী জনৈক শওকত তালুকদারের মালিকানাধীন ফাতেমা ব্রিকস্ ম্যানুফেকসার (এফবিএম)-এ ভ্রাম্যমান আদালত প্রথম অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ড্রামসিট চিমনী ভাঙ্গা হয় এবং ভাটায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পানি ঢেলে আগুন নিভিয়ে দেয়। এরপর আওয়ামী লীগ নেতা জামাল উদ্দিন চেয়ারম্যানের মালিকানাধীন ইউনিক ব্রিকস্ ম্যানেফেকচারিং (ইউভিএম) ইটভাটায় অভিযান চালান ভ্রাম্যমান আদালত। একইভাবে এ ইটভাটায়ও চিমানী ভেঙ্গে ভাটায় ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের দ্বারা পানি ঢালা হয়।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানান, ইট প্রস্তুত ও ভাটা নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৩ এর ৪ ও ৬ ধারা লঙ্ঘন করে লাইসেন্স বিহীন ইট প্রস্তুত ও কাঠ পোড়ানোর অভিযোগে জরিমান করা হয় দু’টি ইটভাটা মালিককে।

এফবিএম ইটভাটার মালিক শওকত তালুকদার বলেন, আলীকদম উপজেলায় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ চলমান আছে। সরকারি কাজে এবং স্থানীয় নানা ধরণের উন্নয়নের কাজের চাহিদা থাকায় তিনি ইট তৈরী করছেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাজিমুল হায়দার বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাকে নিয়ে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় আদালত প্রতি ইট ভাটায় ৫০ হাজার টাকা হারে সর্বমোট ১ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করেন।