॥ বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি ॥

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিএফ) প্রসিত গ্রুপের ভয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি এমএন লারমা গ্রুপ (সংস্কার) সমর্থিত জনপ্রতিনিধিদের পরিবারসহ ৪৯পরিবার আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে।

শুক্রবার (২০এপ্রিল) দুপুর থেকে উপজেলা সদরের জীবঙ্গছড়া কমিউনিটি সেন্টারে আশ্রয় নিতে শুরু করে এসব পরিবার।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রিতারা মানবেতর জীবন-যাপন করছে। আশ্রিতাদের মধ্যে অধিকাংশ শিশু, বয়ো:বৃদ্ধ এবং শিক্ষার্থী রয়েছে।

আশ্রিতাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তারা ইউপিডিএফ’র অত্যাচার ও চাঁদা আদায়ের হাত থেকে নিজেদের জীবন বাঁচাতে উপজেলা সদরে পালিয়ে এসেছে। এই আশ্রয় কেন্দ্রেই স্থানীরা তাদের খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করেছে।

জেএসএস সংস্কার এমএন লারমা গ্রুপের বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জ্ঞানজীবি চাকমা  হিলরিপোর্টকে  জানান, ইউপিএিফ’র ভয়ে আমাদের দলের সমর্থিত অনেক পরিবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে পালিয়ে এসে আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে। আশ্রিতাদের মধ্যে অনেক শিশু এখন অসুস্থ হয়ে পড়েছে। অনেক শিক্ষাথীর লেখা-পড়ার সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি বলেন, ইউডিএফ’র এমন কর্মকান্ড সত্যিই দু:জনক এবং এ ঘটনার জন্য তীব্র নিন্দা জানান। আশ্রিতাদের নিরাপত্তার জন্য তিনি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

এ ব্যাপারে বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার ইউপিডিএফ’র নেতা জুয়েল চাকমা এসব অভিযোগ প্রত্যাখান করে  হিলরিপোর্টকে  বলেন, এটি তাদের অভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণে হয়ে থাকতে পারে।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন  হিলরিপোর্টকে   জানান, আমি ঘটনার ব্যাপারে অবগত আছি। কেউ এখনো কোন অভিযোগ দায়ের করিনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রাঙামাটি, বাংলাদেশ সময় ২৪০০ ঘন্টা, এপ্রিল ২০, ২০১৮