॥ কাউখালী প্রতিনিধি ॥

রাঙামাটির কাউখালীর বেতবুনিয়া থেকে মঙ্গলবার চাইথুই মং মারমা (৪০) নামে যুবকের লাশ উদ্ধারের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পুলিশ আটক করেছে সন্দেহভাজন ৩ জনকে। আটককৃত তিন ব্যক্তি এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বলে পুলিশ নিশ্চিত করছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পুলিশ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে পাইথুই মারমা (১৯), চাচিং মারমা (৩০) ও চাইমং থোয়াই (১৮) নামে তিনজনকে আটক করে।

জানা গেছে, বেতবুনিয়া ইউনিয়নের আমছড়ি পচুপাড়া এলাকার চাইথুই মং মারমা ১০ হাজার টাকা পেতেন আমতলী এলাকার ক্যাসিনো মারমার কাছে। এ নিয়ে দীর্ঘদিন তাদের মধ্যে দেনা-পাওনা দিয়ে মনমানিল্য চলছিলো। সোমবার রাতে ক্যাসিনো মারমার কাছে পাওনা টাকা চাইতে গেলে হত্যার শিকার হন চাইথুই মং।

আরও জানা গেছে, উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ক্যাসিনো এবং তার সাথে থাকা কয়েকজন চাইথুই মং মারমাকে বেধড়ক মারধর করে। এরপর চাইথুইকে পাহাড়ের ঝিড়িতে ফেলে দেয়া হয়। মঙ্গলবার দুপুরে তার লাশ উদ্ধার হলে ঘটনা জানাজানি হয়।

কাউখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদ উল্লাহ জানান, ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। মূল আসামি ক্যাসিনো মারমা পলাতক। তাকে ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে।