ঝুলন দত্ত, উপজেলা প্রতিনিধি। হিলরিপোর্ট

কাপ্তাই: খুব অল্প সময়ে কাপ্তাইবাসীর মন জয় করে ফেলা একজন ইউএনও আশ্রাফ আহমেদ রাসেল। যিনি কাপ্তাইের মাটি ও মানুষের সেবায় প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন।

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে থেমে নেই  কাপ্তাইের ইউএনও আশ্রাফ আহমেদ রাসেল। কাপ্তাই উপজেলার মানুষকে করোনা ভাইরাস মুক্ত রাখতে দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। একজন পরিশ্রমী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে কাপ্তাই উপজেলার প্রতিটি এলাকায় নিজে গিয়ে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করার লক্ষে, সরকারি নির্দেশ মোতাবেক আইন সঠিক ভাবে পরিচালনার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। আবার যারা আইন অমান্য করছে তাদের ও দিচ্ছেন দন্ড। এইভাবে প্রত্যেকটা সময়কে তিনি কাজে লাগিয়ে কাপ্তাইবাসীর সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন।

একজন মানবতার ফেরিওয়ালা বলেও আখ্যায়িত করা যায় কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেলকে, কেননা এই কঠিন পরিস্থিতিতে ঝুঁকি নিয়ে দহতদরিদ্র কর্মহীন মানুষগুলোর দুঃখ কস্ট তিনি উপলব্ধি করছেন। তাই তো তিনি  প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার উপহার স্বরূপ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় হতদরিদ্র কর্মহীন মানুষগুলোর দোয়ারে দোয়ারে গিয়ে পৌঁছে দিচ্ছেন।

শুধু হতদরিদ্র পরিবার নয়, অনেক মধ্যবিত্ত পরিবারের ফোন পেয়ে তিনি তাদের পৌঁছে দিয়েছেন নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী। কাপ্তাইবাসীর জন্য সবসময় সুখে দুঃখে পাশে থেকে কাজ করে গিয়েছেন কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল।

তাই তো কাপ্তাইবাসীর মানুষের মুখে মুখে শোনা যায় এই সৎ, নিষ্ঠাবান, পরিশ্রমী কর্মকর্তা ইউএনও আশ্রাফ আহমেদ রাসেলের কথা। অনেকেই তাঁর প্রশংসা করে বলছেন কাপ্তাইের ইউএনও স্যারের সাথে কাপ্তাই বাসির রক্তের সম্পর্ক না থাকলেও ,আত্মার সম্পর্ক থাকবে চিরদিন। আবার অনেকেই উল্লেখ করেছেন কাপ্তাইবাসী গর্বিত এমন একজন দক্ষ, পরিশ্রমী, সৎ কর্মকর্তাকে পেয়ে। এবং কাপ্তাইবাসী প্রতিনিয়ত ইউএনও আশ্রাফ আহমেদ রাসেলের পাশে থেকে সবসময় নিরন্তর ভালোবাসা ও সহযোগিতা দিয়ে যাবে।