উপজেলা প্রতিনিধি । হিলরিপোর্ট

কাপ্তাই: মহামারি করোনার কারনে গত ২৬ মার্চ হতে রাংগামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলায় সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক জরুরী সেবা খাত ছাড়া সব কিছু বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে খেঁটে খাওয়া মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এমতবস্হায় সরকারের ত্রান মন্ত্রনালয় হতে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার স্বরুপ দফায় দফায় ত্রান বিতরণ করা হচ্ছে। কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসন এবং রাংগামাটি জেলা পরিষদ হতে এই পর্যন্ত প্রায় ১০ হাজার হতদরিদ্র পরিবারকে চাল, ডাল, তেল, লবন সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি প্রদান করা হয়েছে।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান, রবিবার(২৬ এপ্রিল) ৬ষ্ট ধাপ পর্যন্ত কাপ্তাইয়ের ৭৭৫০ টি পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে, এছাড়া বিতরনের অপেক্ষায় আছে আরোও ১৫০০ পরিবার। তৎমধ্যে ১নং চন্দ্রঘোনা ইউপিতে ১৫৫০ পরিবার, ২ নং রাইখালী ইউপিতে ১৯৫০ পরিবার, ৩ নং চিৎমরম ইউপিতে ১১৫০ পরিবার, ৪ নং কাপ্তাই ইউপিতে ১৯৫০ পরিবার এবং ৫ নং ওয়াগ্গা ইউপিতে ১১৫০ পরিবার পেলো প্রধানমন্ত্রীর উপহার।

এইছাড়া কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ২৮০ টি পরিবারকে শিশু খাদ্য প্রদান করা হয়েছে এবং আরোও ৭০ টি পরিবারকে বিতরণ করা হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান, সরকার হতে প্রাপ্ত ৫ লাখ টাকার নগদ অর্থ দিয়ে প্রত্যেকটি ইউনিয়নে চাল, ডাল, আলু এবং লবন সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয় করে স্ব স্ব ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে হতদরিদ্রের ঘরে পৌঁছানো হয়েছে।
এদিকে রাংগামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের পক্ষ হতে এই পর্যন্ত কাপ্তাইয়ের ৫ টি ইউনিয়নে ১৮৫০ টি পরিবারকে ত্রান সহায়তা প্রদান করা হয়েছে বলে জানান,

 জেলা পরিষদ সদস্য প্রকৌশলী থোয়ইচিং মারমা ও সান্তনা চাকমা। তৎমধ্যে ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউপিতে ৩৫০, ২ নং রাইখালী ইউপিতে ৪০০, ৩ নং চিৎমরম ইউপিতে ৩৫০, ৪ নং কাপ্তাই ইউপিতে ৪০০ এবং ৫ নং ওয়াগ্গা ইউপিতে ৩৫০ টি পরিবারকে ত্রান সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

এই ছাড়া কাপ্তাইয়ে ব্যক্তি উদ্যোগ, পুলিশ, সেনাবাহিনী, সামাজিক সংগঠন এবং রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ হতে নানা ভাবে কর্মহীন মানুষক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।