উপজেলা প্রতিনিধি । হিলরিপোর্ট:

রাঙামাটি: রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় কৃষি বিপণন অধিদপ্তর(মার্কেটিং অফিস) আছে কিন্ত কর্মকর্তা না থাকায় বাজার মনিটরিং হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। কাপ্তাই নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান বলেছে- আমি মার্কেটিং অফিসারকে আড়াই মাসেও দেখিনি। বর্তমান বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দৈনিক বাজার দর মার্কেটিং অফিস কর্তৃক মনিটরিং নেওয়ার কথা থাকলেও মাসের পর মাস দোকান ও হাটবাজারে তা মনিটরিং করা হচ্ছে না বলে দোকান ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন।

কাপ্তাই উপজেলা মার্কেটিং অফিসটি নতুন বাজার একটি বিল্ডিং এর তৃতীয় তলায় ঝরাজীর্ণ অবস্থায় সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে রেখেছে। এমন ভাবে সাইনবোর্ডটি ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে যা দেখে কোন উপায় নেই যে এখানে কাপ্তাই মাকেটিং অফিস আছে।

বর্তমান বাজারের দর বেশ উঠা নামা করছে। ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে বাজারদর নিয়ে প্রায় হরহামেশা বির্তকের ঘটনা ঘটে চলছে। কিন্ত বাজার তদারকি দায়িত্ব নিয়োজিত মাকেটিং অফিসার কর্তৃক দৈনিক দর নেওয়ার ও বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়ার কথা থাকলেও তাদেরকে বাজার মনিটরিং করতে দেখা যাচ্ছেনা বলে তাদের বিরুদ্বে বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে।

কাপ্তাই নতুন বাজার বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা জানান, এ পর্যন্ত কোন বাজার মনিটরিং অফিসার আমাদের দোকানে আসেনি এবং বাজারদর জানতে চায়নি। ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন,বছরের একবার তাদের দেখা যায় নতুন লাইসেন্স করার সময়।

অন্যকোন সময় তাদের দেখা যায় না বলে অভিযোগ করেন। সাপ্তাহিক হাটেও তাদের কোন পণ্য নিয়ে তদারকি চোখে পড়েনা বলে অভিযোগ উঠেছে। এদিকে

কাপ্তাই নতুন বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ একরামুল হক বলেন,মাকেটিং অফিস আছে কিন্ত কোন কার্যক্রম নেই। কখনও অফিসারকে বাজারের দৈনিন্দিন দর নিতেও তাদের কখনও দেখা যায়নি। এতে করে বর্তমান বাজারের বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন।

এদিক কাপ্তাই নতুন বাজার মাকেটিং অফিস কার্যালয়ে বুধবার(২১অক্টোবর) সকাল১০ টায় গিয়ে দেখা যায় অফিস তালামারা(অফিস বন্ধ)। যার ফলে কারো সাথে যোগাযোগ করা যায়নি।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহানের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমি কাপ্তাই যোগদান করেছি আজ প্রায় আড়াইমাস যাবৎ, এ যাবৎ কাপ্তাই মাকেটিং অফিসারের কোন দেখা পাইনি। তিনি কোথায় থাকে বা বাজার মনিটরিং করে কিনা কিছুই জানিনা। উনি যদি কাপ্তাই অবস্থান করত তাহলে অবশ্যই আমার সাথে দেখা হত বলে উল্লেখ করেন তিনি।