\ আবু নাছের, বাঘাইছড়ি \

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় কিশালয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শোকের মাতম চলছে। শিক্ষক আমির হোসেনকে হারানোর ব্যাথায় শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং শিক্ষার্থীরা শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদ জানিয়ে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে। বুধবার (২০মার্চ) সকালে উপজেলা পরিষদের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সন্ত্রাসীরা যাদের হত্যা করেছে তারা কোন রাজনৈতিক নেতা নন। সরকারের দায়িত্ব পালন করছিলেন। ইতিহাসের এমন বর্বোচিত হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা আরও বলেন, অবিলম্বে দোষীদের আইনের আওতায় এনে ফাসি দেওয়া হোক। ভবিষ্যতে এ ধরণের দৃষ্টাতা যেন আর দেখাতে না পারে। কারণ সন্ত্রাসীরা কোন জাতের না। তারা রাষ্ট্রের কাজে বাধা দিয়ে রাষ্ট্রের কাজে নিয়োজিতদের নৃশংস ভাবে হত্যা করেছে।

কিশালয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আতিকের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন, বাঘাইছড়ি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন, মাহিল্যা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পঞ্চম সরকারসহ বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষিরা এবং শিক্ষার্থীরা।

গত ১৮মার্চ সন্ধ্যার দিকে সিজক এলাকা থেকে নির্বাচনী কাজ শেষে করে নির্বাচনী কর্তারা নির্বাচনী ব্যালেট পেপার ও সরঞ্জমাদি নিয়ে উপজেলা সদরে ফিরার পথে একদল দুর্বত্ত ব্যালেট পেপার ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্য গুলি করলে ঘটনাস্থলে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারসহ ৫জন এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২জনসহ মোট ৭জন মারা যান। শিক্ষক আমির হোসেন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।