\ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি \

পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের জের ধরে খাগড়াছড়ির পানছড়ি ও ল²ীছড়ি উপজেলায় দুই ইউপি সদস্য অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। অপহরণের বিষয়টি বুধবার প্রকাশ পেলেও অপহৃতদের পরিবারের পÿ থেকে কেউ মুখ খুলছে না। পুলিশের দাবী এখনো পাওয়া যায়নি কোন অভিযোগ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার রাতে (সাড়ে ৯টার দিকে) পানছড়ি উপজেলার লতিবান ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কঠিন কুমার ত্রিপুরাকে (৩৮) ও একই দিন বিকেলে ল²ীছড়ি উপজেলার বর্মাছড়ি ইউনিয়নের পেকুয়া পাড়া এলাকা থেকে ৯নং ওয়ার্ড মেম্বার হেমন্ত চাকমা (৪৫)কে অস্ত্রের মুখে নিজ বাড়ি থেকে অপহরণ করে উপজাতি সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা।

অপহৃত কঠিন কুমার ত্রিপুরা পানছড়ির রামসিং দেওয়ান পাড়ার অনিল কুমার ত্রিপুরা’র পুত্র। হেমন্ত চাকমা ল²ীছড়ি উপজেলার বর্মাছড়ি এলাকার ছ্যাঁকাইয়া চাকমার পুত্র বলে জানা যায়। পানছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নুরে আলম ও ল²ীছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল জব্বার অপহরণের বিষয়ে বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ করেনি।

অপহৃত হেমন্ত চাকমাকে আওয়ামী লীগের কর্মী বলে দাবী করেছে নব নির্বাচিত ল²ীছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী। বিষয়টি মৌখিক ভাবে থানায় জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান। এ ঘটনায় তিনি প্রসীত খীসা নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ’কে দায়ী করেছেন। তবে ইউপিডিএফের পÿ থেকে অপহরণের দায় অস্বীকার করা হয়েছে।