॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥

বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট (বিএমডিএফ) এর অর্থায়নে খাগড়াছড়ি পৌরসভার বাস্তবায়নাধীন পৌর মার্কেট নির্মাণে জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধ মীমাংসায় জায়গা পরিদর্শন করেছে বিএমডিএফ। সোমবার সকাল ১০টায় জায়গা পরির্দশনের শেষে খাগড়াছড়ি পৌরসভা সম্মেলন কক্ষে বিবাদ মীমাংসা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট (বিএমডিএফ) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক-সৈয়দ হাসিনুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো: শজিদুল ইসলাম। এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসন,পৌরসভা নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিএমডিএফ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ হাসিনুর রহমান জায়গা পরিদর্শন শেষে সভায় বলেন, বিরোধহীন জায়গায় এ ধরনের প্রকল্প দেওয়া হয়। বিশ^ ব্যাংকের অর্থায়নে যে প্রকল্প হতে যাচ্ছে তাতে কোন ধরণের অভিযোগ গ্রহণযোগ্য হবে না। তাই যুক্তি উপস্থাপনসহ সকল বিষয়টি মিমাংসা করে কাজ করতে হবে। ২০২০ সালের জুনে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও চলমান প্রকল্পের মেয়াদ ২ বৎসর কমেছে বলে তিনি জানান। সব কিছু ঠিক থাকলে বিষয়টি বিএমডিএফ আন্তরিক ভাবে দেখবে বলে জানান।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো: শহিদুল ইসলাম বলেন, খাগড়াছড়িতে নেই উন্নতমানের মার্কেটসহ নান্দনিক পর্যটকের চাহিদার প্রতিষ্ঠান। তাই দেশ ও সাধারণ মানুষের স্বার্থে সরকারের উন্নয়নে সাধারণ মানুষের জীবনমান অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করতে সকলের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

সভায় বিবাদের বিষয়ে নানা যুক্তি খন্ডন করে নেতৃবৃন্দরা। এ সময় জগন্নত মন্দির সংলগ্ন মন্দিরের পাশে ৩০ শতক জায়গায় উপর মার্কেট করার উদ্যোগ নিলেও একটি পক্ষ তার জায়গার মালিকানা দাবী করে আসলেও বার বার নোটিশ করা হলেও মালিক দাবীদার উপস্থিত না হওয়ার বিষয়টি উঠে আসে আলোচনায়। এ সময় উপস্থিত নেতৃবৃন্দরা উন্নয়ন কর্মকা-কে বাঁধাগ্রস্থ করতে কুচক্রি মহল কাজ করছে বলে অভিযোগ করা হয়। মেয়র অভিযোগ করেন, একটি চক্র রাজনৈতিক ভাবে হিংসাত্বক হয়ে প্রকল্পকে বাঁধাগ্রস্থ করতে কাজ করে যাচ্ছেন বলে তিনি মন্তব্য করেন।