॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের করা মামলায় ৭ দিন কারাভোগের পর জামিনে মুক্ত পেয়েছে খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে)-এর সভাপতি নুরুল আজম। রোববার (২০জানুয়ারী) দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ রোখসানা পারভীনের আদালত তাঁর জামিন মঞ্জুর করে।

সাংবাদিক নুরুল আজমের জামিনের সপক্ষে আদালতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন সিনিয়র আইনজীবি এড. নাসির উদ্দিন আহমেদ, জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এড. আশুতোষ চাকমা, এড. আব্দুল মোমিন, এড. অংসুইথুই মারমা, এড. বেদারুল ইসলামসহ অন্যরা।

গত ১৪ জানুয়ারী দৈনিক জনকন্ঠ ও সময় টিভি’র প্রতিনিধি জীতেন বড়–য়া এর স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রী’র করা মামলায় খাগড়াছড়ি সদর থানা পুলিশ খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি নুরুল আজমকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরন করে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি অশ্লীল ভিডিও’র একটি স্টিল শট (ছবি) ফেইজ বুক- ‘প্রেস’ নামে একটি ম্যাসেঞ্জার গ্রুপে প্রকাশের অভিযোগে ১৪ জানুয়ারী দুপুরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৯, ৩১ ধারায় মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বেসরকারি টিভি ‘এস এ টিভি’ ও ‘বিডিনিউজ২৪ডটকম’ সাংবাদিক নুরুল আজমের জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর জেল গেইটে খাগড়াছড়ির পেশাজীবি সাংবাদিক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ তাকে অভিনন্দন জানান।

এরপর সদ্য কারামুক্ত কেইউজে সভাপতি ও তরুণ আওয়ামীলীগ নুরুল আজম সাংবাদিক ও রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক সহকর্মীসহ প্রতিমন্ত্রী পদ-মর্যাদায় শরণার্থী টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা’র জেলা শহরের বাসভবনে গিয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

এসময় তাঁর স্ত্রী জেলা যুব মহিলা আওয়ামীলীগের সা: সম্পাদক ও জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থা’র সা: সম্পাদক ফারজানা আজম পূর্ণিমা, কেইউজে’র সহ-সভাপতি দি ডেইলি স্টার প্রতিনিধি সৈকত দেওয়ান, সা: সম্পাদক মাছরাঙা প্রতিনিধি কানন আচার্য্য, গোলাবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান জ্ঞান রঞ্জন ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আম্যে মারমা, পেরাছড়া ইউপি চেয়ারম্যান তপন বিকাশ ত্রিপুরাসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার প্রতিনিধিত্বশীল ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।