॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা বলেছেন, খুব শীঘ্রই শুরু করা হবে কাপ্তাই হ্রদের ড্রেজিং। দেশের একমাত্র মিঠা পানির কৃত্রিম বৃহৎ

কাপ্তাই হ্রদটি রক্ষার জন্য ড্রেজিংয়ের কোন বিকল্প নেই বলে জানান তিনি।
সোমবার (৬আগষ্ট) বিকেলে জেলা পরিষদের মিলনায়তনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে অনুষ্ঠিত কাপ্তাই হ্রদের ড্রেজিং নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা আরও বলেন, ২০১৭ সালে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ এবং রাঙামাটি জেলা পরিষদের সমন্বয়ে কাপ্তাই হ্রদের ড্রেজিং বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। ড্রেজিং করার সময় জনগণের যাতে নতুন করে কোন সংকট সৃষ্টি না হয় সে জন্য স্থানীয় নেতৃবৃন্দদের নিয়ে আজকের মতামত সভার আয়োজন করা হয়েছে বলে যোগ করেন তিনি।

সভায় স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা তাদের অভিমতে বলেন, ,কাপ্তাই হ্রদের তলদেশ ভরাট হয়ে যাওয়ার কারণে এলাকার নৌ যোগাযোগ প্রতিবছরই বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এ ছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে পাহাড় ধস ও বন্যার প্রবণতা বাড়ছে। এ ক্ষেত্রে হ্রদের ড্রেজিং করা প্রয়োজন। তাই ড্রেজিং এর সময় স্থানীয় জনগণের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে ড্রেজিং করা হলে এবং ড্রেজিং এর মাধ্যমে উত্তোলিত মাটি অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হলে বর্তমান অবস্থার অনেকাংশে উন্নতি হবে।

এসময় জেলা পরিষদের সদস্য সবির কুমার চাকমা, বরকল উপজেলার ভূষণছড়া ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ মামুন এবং ওই এলাকার হেডম্যান, কার্বারী ও এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ উপস্তিত ছিলেন।