॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, যেহেতু নিজেদের মধ্যে হানাহানি বৃদ্ধি পাচ্ছে; সেহেতু তিন পার্বত্য জেলায় নির্বাচন নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা করা হচ্ছে। নির্বাচনে আগে এ বিষয়ে সেনাবাহিনীর সাথে সমন্বয় করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রোববার (২৮অক্টোবর) দুপুরে বান্দরবানের লামা পৌরসভা এলাকা ও সদর ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পাহাড়ে যে সমস্ত দূরবর্তী এলাকা আছে, সেগুলো সরেজমিন পরিদর্শন করে সেখানে নির্বাচন কর্মকান্ড পরিচালনার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা করা হবে। এজন্য সকল ভোটারদের সহযোগিতাও কামনা করেন তিনি।

লামা উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিতরণ অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান, বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবুল কালাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. কামরুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল, পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য মোস্তফা জামাল, ফাতেমা পারুল ও বান্দরবান জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রেজাউল করিম বিশেষ অতিথি ছিলেন ।

অনুষ্ঠানে ওইদিন ৩০জনকে স্মাট জাতীয় পরিচয় পত্র হাতে তুলে দেন নির্বাচন কমিশমনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। পর্যায়ক্রমে লামা উপজেলার একটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নের ৬৬ হাজার ৯ শত ৮৬জন ভোটারকে স্মাট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ করা হবে বলে জানান তিনি।