জেলা প্রতিনিধি । হিলরিপোর্ট

থাগড়াছড়ি: খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলায় অজ্ঞাত রোগে আবারো ১৫ শিশু আক্রান্ত হয়েছে। বুধবার(৮ এপ্রিল) সকালে এসব শিশুদের দীঘিনালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। তাদের বাড়ি দীঘিনালা উপজেলার রথিচন্দ্র কার্বারী পাড়া গ্রামে।

এসব শিশুদের গায়ে লাল ফোস্কার মতো দাগ এবং প্রচণ্ড জ্বরে আক্রান্ত ছিলো। এর আগে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত ওই গ্রামে সেনাবাহিনী এবং উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ যৌথ চিকিৎসাসেবা পরিচালনা করে। এসময় ২শতাধিক লোকজনকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

জানা যায়, অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে দীঘিনালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয় ১৫ শিশু। তাদের শরীরে প্রচণ্ড জ্বর এবং লাল ফোস্কার মতো দাগ রয়েছে।

এদিকে, এঘটনায় ২১ মার্চ শনিবার রাতেই ধনিতা ত্রিপুরা (৮) নামে এক শিশু মারা যায়। ধনিতা ত্রিপুরা রতিচন্দ্র কারবারী পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

এছাড়া ৪৮ শিশু দীঘিনালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ঘটনাটি উপজেলা সদর থেকে ১৭ কিলোমিটার দূরে দুর্গম রতিচন্দ্র কারবারী পাড়া গ্রামের। গত ২২ মার্চ থেকে এলাকায় এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়|

এ ব্যাপারে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত প্রান্তি ত্রিপুরার পিতা চরণ বিকাশ ত্রিপুরা জানান, গত ২২ মার্চ রোববার থেকে থেকে এলাকায় এরোগ দেখা দেয় এবং বুধবার থেকে আমার মেয়ের শরীরে প্রচণ্ড জ্বর আসে। চোখ মুখ লাল হয়ে যায়।

এ ব্যাপারে দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডাঃ তনয় তালুকদার জানান, ভর্তিকৃত শিশুদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে এবং আগামী শনিবার থেকে ওই গ্রামের সকল শিশুদের (৬-১৩ বছর)হাম টিকা দেয়া হবে।