॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আজ প্রতীক বরাদ্দ হওয়ার পরপরই রাঙামাটি ২৯৯নং আসনের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী দীপংকর তালুকদার নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন। প্রথম দিনের অংশ হিসেবে পথসভা ও আলোচনা সভার মাধ্যমে এ প্রচার-প্রচারণা শুরু করা হয়।

সোমবার (১০ডিসেম্বর) দুপর ২টায় রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক থানা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের উদ্দ্যেগে এ পথসভা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রথমে বাঘাইছড়ি উপজেলার জনসাধারণের সাথে পথে সভায় অংশ ও আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন।

এসময় তিনি দীপংকর তালুকাদার বলেন, পার্বত্য অঞ্চল রাঙামাটিতে শিক্ষা, স্বাস্থ্য যোগাযোগ ব্যবস্থা ইত্যাদি উন্নয়ন কর্মকান্ডে অতীতের অন্য সব সরকারের চেয়ে আওয়ামীলীগ সরকারই সব চেয়ে বেশি উন্নয়ন করেছে। সরকার দুই মেয়াদে যাহাড়ে যা উন্নয়ন করেছে তা আজ দৃশ্রমান। তাই তিনি আড়গামীতে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখাতে আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামীলীগকে সরকার গঠন করার জন্য আহবান জানান।

তিনি আরো বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে জেএসএস অবৈধ অস্ত্রেও মাধ্যমে গত নির্বাচনে ৯৫% থেকে ৯৬% ভোট ডাকাতি করেছে। এবার কোন রকম ভোট ডাকাতির সুযোগ দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারী তিনি। এছাড়াও পার্বত্য জনসংহতি সমিতি জেএসএস শান্তি চুক্তি বিরোধী সংগঠন ইউপিডিএফ ও বিএনপির সাথে আতাত রাজনীতি করে। যার কারণে পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। এসময় তিনি স্বাধীনতার বিরোধী শক্তি বিএনপি ও চুক্তি বিরোধী সংগঠন ইউপিডিএফ এর সঙ্গ এবং অবৈধ অস্ত্রেও ঝনঝনানি থেকে পার্বত্য জনসংহতি সমিতিকে বের হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার আহবান জানান।

সাজেক থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি গরেন্দ্র ত্রিপুরার সভাপতিত্বে সভায় রাঙামাটি মহিলা সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু এমপি, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাজী কামাল উদ্দিন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা, সাজেক থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সুজিত দে, সাজেক থানা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জুয়েলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

সভায় অন্যন্যা বক্তারা, রাঙামাটিতে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হলে, আওয়ামীলীগ সরকারের বিকল্প নেই। পাহাড়ি বাঙালী সম্প্রীতি বজায় রেখে আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা স্থিতিশীল রাখতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে রাঙামাটিতে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করার আহবান জানান।