॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

দীর্ঘ আট বছর পর বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে অনুষ্টিত এই সম্মেলনে ১৫১ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছে অধ্যাপক শফিউল্লাহ ও ১৫৭ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মো: ইমরান মেম্বার।

তাদের প্রতিদ্বন্ধী ছিলেন যথাক্রমে তারেক রহমান ও ডা: সিরাজুল হক। সম্মেলনে মোট ১৮১ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ১৭৯জন্য ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

বুধবার (২মে) ১২টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বান্দরবান জেলা আওয়ামিলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা। পরে উপজেলা পরিষদের সামনে উম্মুক্ত মঞ্চে সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত গণ সমাবেশে বক্তব্যে রামু-কক্সবাজার আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন- বান্দরবানের উন্নয়ন চাইলে আগামী নির্বাচনে বীর বাহাদুর কে বাক্স ভর্তি করে ভোট দিন। অন্যথায় উন্নয়নচ্যুত হতে হবে।

এসময় তিনি কক্সবাজারের ১ হাজার কোটি টাকার অসামাপ্ত উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করতে তাঁকে পুনরায় নির্বাচিত করার আহ্বান জানান।

বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ক্য শৈ হ্লা বলেন- নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন পুরো জেলায় মডেল হয়ে থাকবে। নতুন কমিটিতে যারা আসবেন তারা আগামী সংসদ নির্বাচনে বীর বাহাদুরের হাতকে আরো শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।

কাউন্সিল পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আজিজ ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরীর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্টিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি শফিকুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি একে এম জাহাঙ্গীর, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লক্ষী পদ দাশ, জেলা পরিষদ সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর, জেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক অজিত কান্তি দাশ, ছাত্রলীগ সভাপতি কাউসার সোহাগ|

কাউন্সিল আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক ক্যউচিং চাক, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিন, দোছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মো: হাবিবুল্লাহ, দোছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বাহান মার্মা, স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি আবদুস সাত্তার সহ জেলা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অংগ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।