॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় তিনজন গ্রামবাসীকে অপরহরণের অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (৪আগষ্ট) দুপুরে উপজেলার টিএন্ডটি বাজারে অপহরণের ঘটনা ঘটে।

অপহৃতরা হলো- উপজেলার পাতাছড়ি গ্রামের নতুন চন্দ্র চাকমার ছেলে রিপন চাকমা (২৬), বড়পুল গ্রামের মৃত নৃপেন্দ্র চাকমার ছেলে ত্রিদীপ চাকমা (২৮) এবং একই গ্রামের মুধুসুদন চাকমার ছেলে দীপংকর চাকমা (২৪)।

শনিবার বিকেলে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) প্রসীত গ্রুপের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটির রাঙামাটি জেলা ইউনিটের প্রধান সচল চাকমার বক্তব্যের মাধ্যমে এসব তথ্য জানানো হয়।

ইউপিডিএফ’র প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরণ চাকমা এ ঘটনার জন্য (ইউপিডিএফ’র ভাষায় নব্য মুখোশ বাহিনী ) গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ (বর্মা গ্রুফ) এবং এমএন লারমা গ্রুপকে দায়ী করেছে।

আঞ্চলিক সংগঠনটির এ নেতা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, উপজেলায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির লক্ষ্য নব্য মুখোশ বাহিনীর সশস্ত্র ক্যাডার উজ্জ্বল কান্তি চাকমা ওরফে দাজ্জে এবং রণয় চাকমার নেতৃত্বে ১০-১২জনের একটি সশস্ত্র দল টিএন্ডটি বাজারে হানা দিয়ে রিপন, ত্রিদীপ এবং দীপংকরকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায়।।

অবিলম্বে অপহৃত তিন গ্রামবাসীকে উদ্ধার এবং প্রকৃত অপরাধীদের গ্রেফতার করার জন্য জোর দাবি জানান।

তবে অভিযুক্ত দুই পাহাড়ি আঞ্চলিক সংগঠন গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ (বর্মা গ্রুপ) এবং এমএন লারমা গ্রুপ এ ঘটনার সাথে তারা জড়িত নয় বলে জানান।

সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দরা বলেন, এটি আমাদের বিরুদ্ধে একটি ষড়যন্ত্র।

নানিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ জানান, পুলিশ এ বিষয়ে অবগত নয়। কারণ থানায় কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।