॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে অন্যান্য প্রার্থীদের মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন সুজিত তালুকদার।

সুজিত দেশের প্রাচীন রাজনৈতিক সংগঠন আ’লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছেন। বর্তমানে তিনি রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন দীর্ঘদিন ধরে।

পাশাপাশি নানিয়ারচর উপজেলা হেডম্যান এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও সফলতার সাথে পালন করছেন তিনি।

সুজিত তালুকদার এসব দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি স্থানীয় জনগণের সেবা পরিধি বাড়াতে এবার জনপ্রতিনিধি হওয়ার আশা ব্যক্ত করেছেন। এজন্য তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিতে ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

দেশের সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৮মার্চ তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নানিয়ারচর উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন।

স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা গেছে, অন্যান্য প্রতিদ্বন্ধীদের চেয়ে সুজিতের জনপ্রিয়তা যোজন যোজন দূরুত্ব রয়েছে। তারা বলেন, দেশের স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে বিজয়ী করতে সুজিতের কোন বিকল্প নেই এই উপজেলায়। তাই দল, মত, জাতি, বর্ণ নির্বিশেষে ১৮মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে সুজিত তালুকদারকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবো।

ভাইস চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী সুজিত তালুকদার হিল রিপোর্টকে একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন- আমি দীর্ঘ দিন ধরে আ’লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছি। পাশাপাশি স্থানীয় হেডম্যান এসোসিয়েশনের দায়িত্ব পালন করছি।

জনগণের জন্য বড় কিছু করতে বড় পরিসরের জায়গার দরকার হয়। তাই এবার সেই পরিধির জায়গা বাড়িয়ে তৃনমূল পর্যায়ে জনগণের কাছে সেবা পৌছে দিতে জনপ্রতিনিধি হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করছি। এরই ধারাবাহিকতায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছি।

আ’লীগের এ নেতা আরও বলেন- যদি ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয় তাহলে আমার প্রথম কাজ হলো- এ উপজেলায় পাহাড়ি-বাঙালী সম্প্রদায়ের মধ্যে শান্তি, বিশ্বাস স্থাপন করা হবে। এরপর উপজেলার উন্নয়নে পাহাড়ি-বাঙালী নির্বিশেষে এলাকার, দেশের স্বার্থে কাজ করবো এবং সরকার ঘোষিত নানা উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা হবে।

সুজিত জানান, যারা দেশের শত্রু, জনগণের শত্রু তাদের বিরুদ্ধে আপোষহীন সংগ্রামের লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়েছে। সেই বিশ্বাস থেকে বলতে পারি এবারের নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে আমি সেরা। আর নির্বাচনে স্থানীয় জনগণ আমাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করে জনগণের জন্য সেবা প্রদান করার সুযোগ করে দিবেন।