॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশীদ বলেছেন, পাহাড়ের প্রতিটি দূর্গম অঞ্চলেও প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম জোরদার করেছে বর্তমান সরকার। পাহাড় আর সমতলের সকল শিশু সমান সুযোগ নিয়ে যাতে শিক্ষা গ্রহন করতে পারে তারজন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করেছে সরকার। স্থানীয় প্রশাসন ও শিক্ষা বিভাগ এজন্য নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, শিশুর মানসিক বিকাশে প্রধান ভূমিকা রাখতে পারে শিশুটির ‘মা’। এজন্য মায়েদের অনেক বেশী সচেতন থাকতে হবে, যাতে শিশুটি ঠিকমত বেড়ে উঠতে পারে। শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে রাঙামাটি জিমনেসিয়া মঠে রাঙামাটিতে এক বিশাল মা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

‘‘মানসম্মত শিক্ষা, শেখ হাসিনার দীক্ষা’’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে রাঙামাটিতে প্রথমবারের মত মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করণে সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচির আওতায় উপজেলা পর্যায়ে রাঙামাটি সদর উপজেলায় মা সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাঙামাটি জিমনেসিয়াম চত্বরে অনুষ্ঠিত মা সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ সুমনী আক্তার। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক(বিদ্যালয়) মোঃ মাহবুবুর রহমান বিল্লাহ, রাঙামাটি সদর উপজেলার চেয়ারম্যান অরুণ কান্তি চাকমা, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ খোরশেদ আলম, সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ রবিউল হোসাইন। রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, বালুখালী ইউপি চেয়ারম্যান বিজয়গিরি চাকমা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি সদর উপজেরা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ত্রিরতন চাকমা। এছাড়া অভিভাবক, শিক্ষকসহ অন্যান্য কর্মকর্তা বৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

রাঙামাটি সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসের আয়োজনে শিক্ষক, সমাজের সচেতন ব্যক্তি এবং অভিভাবকসহ রাঙামাটি সদর উপজেলাধিন ৬টি ইউনিয়নের হাজারেরও বেশী ‘‘মা’’ অংশ নেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, প্রত্যেকটি মা এক সুরভিত ফুল আর প্রতিটি ঘর একেকটি স্কুল। শিক্ষার্থীর মা তাদের সন্তানদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ার প্রতিশ্রুতি থাকা জরুরী। দেশে একটিু ছাত্রছাত্রী যেন শিক্ষা কে বঞ্চিত না হয় সে লক্ষে বর্তমান সরকার গুরুত্বসহকারে কাজ করে যাচ্ছে। সারাদেশে বিনামূলে বই দিচ্ছে, প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি দিচ্ছে। এছাড়াও ছাত্র-ছাত্রীর আদর্শ জীবন গড়তে শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের মাঝে মুক্ত আলোচনা হয়।
বক্তারা আরো বলেন, পাঠ্য বই ও সার্টিফিকেট নির্ভর পড়ালেখা ভাবনা ছেড়ে সৃজনশীল শিক্ষায় শিক্ষিত হবে হবে। শ্রেণিকক্ষে শতভাগ উপস্থিতি নিশ্চিত করা, ঝরেপড়া রোধ, মিড ডে মিল কার্যক্রম সফল এবং সবার জন্য মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে আজকের এই মা সমাবেশের আয়োজন করা।

সমাবেশের শুরুতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহনে সম্প্রীতির সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।