॥ মঈন উদ্দীন বাপ্পী ॥

বিলাইছড়ি জোন কমান্ডার লে.কর্ণেল শেখ আব্দুল্লাহ বলেছেন- পাহাড়ের একটি বিশেষ মহল তাদের স্বার্থসিদ্ধি উদ্ধারে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। সোমবার (১২নভেম্বর) বিকেলে বিলাইছড়ি উপজেলার কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারের কঠিন চিবর দান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

লে.কর্ণেল আরও বলেন- পাহাড়ে সেনাবাহিনীর ৪০বছরের ইতিহাসে কেউ বলতে পারবে না কোন ধর্মের প্রতি বৈষম্য প্রদান করেছে। সেনাবাহিনী পাহাড়ের প্রতিটি এলাকায় বৌদ্ধ মন্দির, মসজিদ এবং প্যাগোডা নির্মাণে সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছে।

শেখ আব্দুল্লাহ জানান- পাহাড়ে ফ্যাসাদ সৃষ্টিকারী একটি মহল ধর্মকে পুজিঁ করে সাধারণ মানুষকে উস্কে দিচ্ছে। যারা ধর্মকে পুঁজি করে এ অঞ্চলে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টি করছে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। কারণ দেশের স্বার্বভৈৗমত্ব রক্ষায় সেনাবাহিনী যে কোন কিছু ত্যাগ করতে প্রস্তুত রয়েছে।

আব্দুল্লাহ আরও জানান- বৌদ্ধ ধর্ম অহিংসার ধর্ম। সকলে যদি স্ব-স্ব ধর্ম ঠিক মতো পালন করে তাহলে পাহাড়ে ধর্মকে পুঁজি করা নৈরাজ্যবাদীদের বিলীন করা সহজ হবে। এজন্য তিনি পাহাড়ের সকল সম্প্রদায়কে সচেতসতার দৃষ্টি রেখে পাহাড়ে শান্তি এবং উন্নীতর জন্য সকলে কাধেঁ কাধঁ মিলেয়ে কাজ করার আহ্বান জানান ।

কঠিন চিবর দানানুষ্ঠানে এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ ইকবাল, বিলাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহম্মেদ নাছির উদ্দীনসহ মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দসহ সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা শেষে জোন কমান্ডার মন্দির পরিচালনা কমিটির হাতে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন।