॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

পাহাড়ের ৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। বিভিন্ন সংশ্লিষ্ট সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে সেগুলো হলো- রাঙামাটির বরকল উপজেলার ভাইবোনছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লংগদু গোলটিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাঘাইছড়ি উলুছড়ি রাবার প্রজেক্ট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাজস্থলী ইয়ংম্রংপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একই উপজেলার বড়পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং বান্দরবান সদরের রোয়াজা পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রটি জানায়, প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষার্থী ভর্তির হার বাড়ছে না। দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশাপাশি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়েও শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে যাচ্ছে।

এর মধ্যে পাহাড়ের ৬ টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২০ জনেরও কম। ওই সব বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকদের হোম ভিজিটে অনীহা, অত্যন্ত দুর্বল পরিদর্শন এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার শিক্ষা কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনে অবহেলার কারণে এসব বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তির হার কমে গেছে বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

ছাতা-ছাত্রী ভর্তির হার বাড়ানো না গেলে এসব বিদ্যালয়কে আশপাশের বিদ্যালয়ের সাথে একীভূত হবে এবং ব্যর্থতার দায়ে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক, ইন্সট্রাক্টর এমনকি শিক্ষা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

সেই সাথে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা কেন কমে গেল এবং ছাত্র-ছাত্রী বাড়াতে কি ধরনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে সে সম্পর্কে সংশ্লিষ্টদের কাছে বিস্তরিত প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে।

রাঙামাটি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খোরশেদ আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমাদের কাছে এ ধরণের কোন নির্দেশনা আসেনি। নির্দেশনা আসলে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।