॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের ক্ষতি রোধে অগ্রিম উদ্যোগ গ্রহণ করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন। এজন্য জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ শনিবার (২১এপ্রিল) দুপুরে প্রশাসনের কর্মকর্তা ও স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে নিয়ে সরেজমিনে গিয়ে ভূমি ধসের ঝুঁকিপূর্ণ স্থান সমূহে সতর্কীকরণ সাইন বোর্ড ঠাঙিয়ে দিয়েছেন।

এসময় ওই এলাকায় বসবাসরত জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে ডিসি মামুন বলেন, বর্ষা শুরু হওয়ার সাথে সাথে যেন এসব জনসাধারণ আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় গ্রহণ করে। এছাড়া পাহাড় ধস রোধ সম্পর্কে তাদেরকে সচেতন করে তোলেন।

এসময় প্রশাসক মামুন সাংবাদিকদের জানান, স্থানীয় জনসাধারণ, জনপ্রতিনিধিসহ সকলের সমন্বয়ে জেলা প্রশাসন সচেতনতামূলক সভা করবে। এ সভার মূল উদ্দেশ্য হলো- যেকোনও দুর্যোগের আগেই জনসাধারণকে যাতে করে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া যায়। ডিসি মামুন আরও জানান, আশ্রয়কেন্দ্রের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে। সরকারের পক্ষ থেকে দূর্যোগকালীন সময়ে মানুষের জন্যে পাশে দাঁড়াতে জেলা প্রশাসন প্রস্তুত বলে জানান ডিসি মামুন।

এদিকে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, জেলা শহরের উল্লেখযোগ্য ঝুঁকিপূর্ণ স্থান সমূহ তালিকা করা হয়েছে। এসব স্থান সমূহ হলো- শিমুলতলী, নতুন পাড়া এলাকা, মুনতলা, ভেদভেদী, পশ্চিম মুসলিম পাড়া উল্লেখযোগ্য।

প্রসঙ্গত: ২০১৭ সালের ১৩ জুন রাঙামাটিতে ভয়াবহ পাহাড় ধসের ঘটনায় সরকারি হিসেবে মতে ১২০ জন নিহত হওয়ার রেকর্ড থাকলেও বেসরকারি হিসেবে আরও বেশি মানুষ হতাহত হয়েছে। এছাড়া ব্যাপক ঘরবাড়ি, গবাদি পশুসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়।