স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: রাঙামাটি জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন-শুরু হচ্ছে বর্ষা মৌসুম। বর্ষা মৌসুমে বিগত কয়েক বছর ধরে রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটছে। প্রাণ হারাচ্ছে মানুষ, ক্ষতি হচ্ছে জান-মালের। পাহাড় ধস থেকে বাঁচতে হলে বর্ষা শুরু হওয়ার সাথে সাথে নিরাপত্তা স্থানে সরে যেতে হবে।

মঙ্গলবার (১৪জুন) সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের আয়োজনে প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষ্যে অনুষ্ঠিত আসন্ন বর্ষা মৌসুমে পাহাড় ধস, বন্যা, ভূমিকম্প ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুতিমূলক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ডিসি বলেন- জেলার অধিকাংশ মানুষ ঝুঁকি নিয়ে পাহাড়ে বসবাস করছে। এখানে উল্লেখযোগ্য সমতল ভূমি নেই। পাহাড়কে ঘিরে এখানে বসতি গড়ে উঠেছে। কিন্তু এখানকার পাহাড়ের মাটি অত্যন্ত নরম। বর্ষা আসলে মাটি ধসে যায়। যে কারণে বর্ষা মৌসুমে পাহাড়ে বসবাসকারীদের জীবন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। তাই বর্ষা মৌসুমে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে আসতে সভায় অনুরোধ জানান তিনি। ক্ষয়-ক্ষতি এবং প্রাণহানী এড়াতে এ ব্যাপারে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ প্রশাসনের অন্যান্য বিভাগ সমূহকে সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা চালানোর জন্য সভায় বলেন তিনি।

এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. মামুন মিয়া, নারগিস সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জাহিদুল ইসলাম, জেলা পরিষদের সদস্য বিপুল ত্রিপুরাসহ সংশ্লিষ্ট সরকারি-বেসরকারি এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা এ সভায় অংশ নেন।