স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল এর চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিক এবং গণমাধ্যমের প্রতি অত্যন্ত আন্তরিক। করোনাকালে সারাবিশ্বের গণমাধ্যম এবং সাংবাদিকরা যেখানে করুণ জীবনকাল পার করেছেন সেখানে আমাদের প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের নগদ অর্থের প্রণোদনা দিয়ে সহায়তা করেছেন; যা বিশ্বে বিরল।

রোববার (০১নভেম্বর) দুপুরে রাঙামাটি সার্কিট হাউস সন্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত জেলার স্থানীয় সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল আয়োজিত “মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, হলুদ সাংবাদিকতা পরিহার” শীর্ষক মতবিনিময় সভা ও বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চেয়ারম্যান আরও বলেন, সাংবাদিকতা মহান পেশা, সন্মানের পেশা। এ পেশার মান বজায় রাখতে এবং পেশার ঐতিহ্য ধরে রাখতে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। আগামী ২০৩০সালের মধ্যে বাংলাদেশের সাংবাদিকদের অর্থনৈতিক মুক্তিসহ যাবতীয় সমস্যা দূর করতে হবে।

তরুণ সাংবাদিকদের মন দিয়ে অনুসন্ধানী রিপোর্ট করার তাগিদ দিয়ে চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ জানান, সাংবাদিকতার মূল প্রাণ হলো অনুসন্ধানী রিপোর্ট। এ ধরণের রিপোর্ট করলে যেমন সমাজের অসামঞ্জস্যগুলো উঠে আসবে তেমনি পরিবর্তনের প্রত্যয় ঘটবে।

চেয়ারম্যান আরও জানান, গণমাধ্যম বর্তমানে অনেক চ্যালেঞ্জের মধ্যে দিয়ে দিন পার করছে। এর মূল কারণ হলো- পেশাদারিত্বের অভাব। অযোগ্য লোকেরা এ পেশায় ভর করলে মহান পেশাটা কলুষিত হবে। সেইজন্য আমাদের কিছু নৈতিক দায়িত্ব রয়েছে।

এসময় বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল এর সচিব (যুগ্ম সচিব) শাহ আলম, রাঙামাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছুফি উল্লাহ, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হকসহ রাঙামাটিতে কর্মরত সংবাদ কর্মীরা আলোচনায় অংশ নেন।