স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: রাঙামাটি জেলা প্রশাসক (ডিসি) একেএম মামুনুর রশীদ বলেছেন, প্রবাসীদের ব্যাপারে আমাদের সঠিক পরিকল্পনা নিতে হবে। কারণ তাদের পাঠানো রেমিটেন্স নিয়ে আমাদের দেশের অর্থনীতি সমৃদ্ধশালী হচ্ছে।

বুধবার (১৯আগষ্ট) দুপুরে প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা ও বৈদশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রাণালয়ের অর্থায়নে, রাঙামাটি সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে, রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ‘বৈদশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা’ শীর্ষক জনসচেতনতামূলক প্রচার, প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এইসব কথা বলেন।

ডিসি মামুনুর রশীদ আরও বলেন, সভা, সেমিনার করে কোন লাভ নেই। দরকার সঠিক পরিকল্পনা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন, আগামী ৫বছরে ১কোটি ২৮লক্ষ কর্মসংস্থান সৃজনের পরিকল্পনা হিসেবে দেশের প্রত্যেক উপজেলা থেকে একহাজার জন যুব বা যুব মহিলাকে বিদেশে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। সরকারের এই পকিল্পনাটি বাস্তবায়ন করার জন্য প্রত্যেক উপজেলায় ডাটাবেইজ তৈরি করতে হবে। কতজন বিদেশে আছেন,এবং কতজন বিদেশ যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছেন এ ব্যাপারে তথ্য রাখতে হবে।

ডিসি একেএম মামুনুর রশীদ জানান, বিদেশে যাওয়া আমাদের দেশে বেশিরভাগ শ্রমিক অদক্ষ। তারা দালালের খপ্পরে পড়ে চরম বিপদ ডেকে আনে। বর্তমানে সরকার এইসব অপকর্ম ঠেকাতে সুষ্ঠু পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। দক্ষ শ্রমিক গড়ে তুলতে গড়ে তোলা হয়েছে বিভিন্ন কারিগরী প্রশিক্ষণশালা। এখানে বেকার যুবক-যুবরা প্রশিক্ষণ নিয়ে সরকারি নির্দেশনা মেনে বিদেশে গেলে তাদের কাজের কোন সমস্যা থাকবে না। পড়তে হবে না কোন ভোগান্তিতে।

তিনি আরও জানান, সরকার প্রবাসীদের জন্য সরকার ঋণের ব্যবস্থা করেছে। এখন ঋণগুলো তারা সঠিক ভাবে নিতে পারছে কিনা এই ব্যাপারেও সচেতনতা গড়ে তোলতে হবে।

রাঙামাটি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শহিদুজ্জামান মহসিন রোমান এর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাতেমাতুজ জোহরা উপমা এর পরিচালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন- রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিল্পী রাণী রায়, রাঙামাটি কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন, রাঙামাটি সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন আক্তারসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের বিষয়ে জনসচেতনতা বিষয়ক প্রবন্ধ পাঠ করেন- প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদশিক কর্মসংস্থান রাঙামাটি অঞ্চলের সহকারী পরিচালক নীহার কান্তি খীসা। তিনি এসময় সংসাবাদিকদের নানান প্রশ্নের উত্তর দেন।