স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরী বলেন- সাফ জয়ী নারী ফুটবলরা বাংলাদেশের গর্ব। তারা বাংলাদেশের মান উঁচু করেছেন। বিজয়ী এ দলে আমাদের রাঙামাটির দু’খেলোর রয়েছে। ২৯ সেপ্টেম্বর তাদের আমরা সংবর্ধনা দিবো। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা পরিষদের আয়োজনে পরিষদের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত জেলা উন্নয়ন কমিটির সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন।

চেয়ারম্যান এসময় জনশক্তি ও কর্মসংস্থান বিভাগ ও কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের বিভাগীয় প্রধানদের সভায় অনুপস্থি’তিতে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন- জেলার গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে তাদের উপস্থিতি থাকা উচিত ছিলো।
চেয়ারম্যান এসময় শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরকে চলমান প্রকল্পগুলো দ্রুত সম্পাদনের জন্য তাগিদ দেন। তিনি হেডম্যান কার্যালয়ের জায়গা রেকর্ডের জন্য এবং জমি খাজনা সহনীয় পর্যায়ে আনয়নের জন্য জেলা প্রশাসকের প্রতি অনুরোধ জানান।
এছাড়া কাপ্তাই হ্রদকে দূষণমুক্ত রেখে প্রকল্প গ্রহণ ও সুদূরপ্রসারী প্রকল্প বাস্তবায়ন, আসন্ন দুর্গাপুজা ও কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠানে অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভাগের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

চেয়ারম্যান বলেন, মূলত বিভিন্ন বিভাগের কাজের অগ্রগতি, সমন্বয় ও পরিকল্পনা করার জন্য এই মাসিক উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত হয়। তাই এই সভাকে প্রতিনিধি সভা না ভেবে অন্তত মাসে একদিন উন্নয়ন সভা হিসেবে দেশ ও জাতির উন্নয়নের জন্য কর্মকর্তাদের স্বশরীরে উপন্থিত থেকে মূল্যবান মতামত প্রদানের জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আশরাফুল ইসলাম এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নাসরীন সুলতানা (শিক্ষা ও আইসিটি), ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আবেদ উদ্দীন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মারুফ আহমেদ, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা শ্রীবাস চন্দ্র চন্দ, হর্টিকালচার সেন্টারের উপপরিচালক মোঃ কাজী শফিকুল ইসলাম. কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপপরিচালক তপন কুমার পাল, দক্ষিণ বন বিভাগের এসিএফ গঙ্গা প্রসাদ চাকমা, উত্তর বনবিভাগের এসিএফ মোঃ মনিরুজ্জআমান, জনস্বাস্থ্য নির্বাহী প্রকৌশলী পরাগ বড়–য়া, বিতরণ বিভাগ রাঙামাটি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সাইফুর রহমান, জেলা সমবায় অফিসার মৌসুমী ভট্টাচার্য্যসহ সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ন কর্মকর্তাগণ।