॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা স্বাধীন দেশ পেতাম না।  তিনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী। এ বাংলাদেশ এবং বাঙালী জাতি যতদিন পৃথিবীর মানচিত্রে যতদিন থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকবে।

বুধবার (১৫ আগষ্ট) সকালে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

এর আগে ওইদিন সকালে বুধবার সকালে দিনটি উপলক্ষ্যে শহরের কলেজগেইটস্থ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয়। এসময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

এরপর ওই স্থান একটি একটি শোক শোভা বের করা হয়। শোক সভাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গনে গিয়ে শেষ হয়। শোভা পরবর্তী শিল্পকলা মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদের সভাপতিত্বে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় এসময় ডিজিএফআই রাঙমাটি অঞ্চলের অধিনায়ক কর্ণেল সামসুল আলম, বিএফডিসি’র কমান্ডার মো. আসাদুজ্জামান, পুলিশ সুপার আলমগীর কবির, পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা ১৫আগষ্টের স্মৃতি তুলে ধরে বলেন, আমরা এমন এক লজ্জ্বিত জাতি আমরা আমাদের জাতির পিতাকে নৃশংশ ভাবে হত্যা করেছি। যা পৃথিবীর ইতিহাসে নিকৃষ্ট এবং ঘৃণাজনক ঘটনা। বক্তারা এসময় বঙ্গবন্ধুর বাকী খুনীদের দেশে এনে বিচার করার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানান।

দেশের তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বক্তারা বলেন, এদেশেকে এগিয়ে নিতে হলে আপনাদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করতে পারলে দেশ এমনিতেই এগিয়ে যাবে। কারণ বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ।

আলোচনা শেষে সভায় উপস্থিত অতিথিবৃন্দরা স্বেচ্চায় রক্তদান কর্মসুচির উদ্বোধন করেন। এরপর বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর বিভিন্ন কুইস প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণকারী শিক্ষার্থীর মাঝে পুরুষ্কার বিতরণ করেন আগত অতিথিরা।