॥ বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি ॥

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. গিয়াস উদ্দীন (৫৫) নামের আ’লীগের এক নেতাকে মুঠোফোনে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। রোববার (২৪মার্চ) সকালে নিজের পরিচয় অজ্ঞাত রেখে আ’লীগের এ নেতাকে হুমকি দেওয়া হয়।

এ ঘটনার পর আ’লীগের এ নেতা জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে বাঘাইছড়ি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে। ডায়েরী নং ৭০৯, ২৪.০৩.১৯।

ডায়েরীর অভিযোগে উল্লেখ করা হয়-গত ১৮মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ’লীগের এ নেতা উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমার চীফ এজেন্টের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। আর এ দায়িত্ব পালনের পর থেকে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে আসছিলো। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার সকাল ৯.৪০ঘন্টার দিকে অচেনা মোবাইল নং ০১৮৬৭১৩৫৪৩১ থেকে তার ব্যক্তিগত মুঠোফোনে গুলি কওে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গিয়াস জানান, যারা নির্বাচনে হেরে গেছে সেই পক্ষের কোন ব্যক্তি আমাকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে।

তিনি আরও জানান, আমাকে হুমকি দেওয়া রবি নাম্বারটি অচেনা হলেও এ নাম্বার ট্রুকলার দিয়ে সার্চ করলে প্ররমেশ চাকমা নামের একজন ব্যক্তির নাম জানা গেছে।

তিনি বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এবং রোববার বিকেলে একটি সংবাদ সন্মেলন করবেন বলে যোগ করেন তিনি।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।