॥ বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি ॥

রাঙামাটির দূর্গম বাঘাইছড়ি উপজেলায় ৫ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছে যুবদলের কর্মীরা। শুক্রবার (২৮ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত দশটার দিকে উপজেলার আমতলী ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- আমতলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো. পারভেজ (২৩), মো. সাকিব (২২), মো. জীবন ১৯), সাধারণ সম্পাদক মো. খোকন (২৫) এবং ছাত্রলীগের কর্মী মোস্তফা এলমান ( ১৮)।

আমতলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মো. রুবেল আলম জানান- ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা শুক্রবার রাতে নির্বাচনী অফিসে যাওয়ার পথে তাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে স্থানীয় যুবদলের নেতা মো, ফারুক এবং মঈনুদ্দীন বাবুলের নেতৃত্বে যুবদলের কর্মীরা। এরপর ধারালো অস্ত্র ও রট দিয়ে এলোপাতারি আক্রমন চালায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের উপর। এতে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা গুরুতর আহত হয়।

ঘটনার সংবাদ পেয়ে স্থানীয় আ’লীগের নেতৃবৃন্দরা ছুটে গেলে যুবদলের নেতা-কর্মীরা এসময় পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে আহত ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে আহতরা সকলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। প্রশাসন পরিস্থিতি শান্ত রাখতে চারদিকে নিরাপত্তা জোরদার করেছে এবং ওই এলাকায় টহল প্রদর্শন করছে।

আমতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ওই ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি রাসেল চৌধুরী জানান- বিএনপি-জামাত-শিবিরের কর্মীরা পরাজয় নিশ্চিত জেনে আ’লীগের কর্মীদের উপর চোরাগুপ্তা হামলা করছে। তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান এবং অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করতে প্রশাসনের প্রতি সহযোগিতা কামনা করেন।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ মনজুরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান- বর্তমানে ওই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে প্রশাসন ওই এলাকায় টহল জোরদার করেছে।স্থানীয় আ’লীগের নেতৃবৃন্দ থানায় অভিযোগ দায়ের করলে যথাযথ ব্যবস্থা নিবেন বলে পুলিশের এ কর্মকর্তা যোগ করেন।