জেলা প্রতিনিধি । হিলরিপোর্ট

খাগড়াছড়ি: পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ির গুইমারা এলাকাবাসীর কাছে বিষফোঁড়া হয়ে উঠেছে বিদ্যুৎ লাইনম্যান মো: অহিদ। একই জায়গায় বছরের বছর একই দায়িত্বরত থাকায় তুঙ্গে তার অনিয়ম-দুর্নীতি।

গুইমারা উপজেলা যত্রতত্র বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ায় নামে অনিয়ম,দুর্নীতি ও জালিয়াতীর বেড়ে গেছে এই উপজেলা। এভাবেই তার বছরের বছর এই লাইনম্যান চালিয়ে যাচ্ছে অনিয়মের মহাযজ্ঞ। তারপরও যেন দেখার কেউ নেই। এ যেন বিদ্যুৎ বিভাগের সকলে মিলেমিশে একাকার হয়ে যাওয়ার মত অবস্থা। তাই স্থানীয়দের মূখে মুখে শোভাপাচ্ছে বিদ্যুৎ বিভাগের শষ্যের মধ্যেই রয়েছে ভূত।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গুইমারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সয়লাব হয়ে উঠেছে অবৈধ সংযোগে। মাথার উপর ঝুলছে যত্রতত্র বিদ্যুৎ এর তার। মূলসড়ক কিংবা অলিগলির পথে চলতেই চোখে পড়ে গাছে গাছে জটলা বাধা বিদ্যুৎ সংযোগের অবৈধ লাইনের লাল-কালো তার। এসব বিপদজনক তার যেন এখন মৃত্যুর দিকে টানছে প্রতিনিয়তই। প্রায় এসব ঝুলন্ত তার ছিড়ে রাস্তায় ঘটছে দুর্ঘটনাও।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়,বিভিন্ন সময় বিদ্যুতের পিলার দেওয়ার কথা বলে টাকা নিলেও অনেক এলাকায় এখনো যায়নি বিদ্যুৎ পিলার। রাস্তার পাশের গাছে,বাঁশ দিয়ে এসব বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার ফলে সর্বত্রই বিরাজ করছে আতঙ্ক। আশঙ্কা তৈরী হয়েছে বড় ধরনের দূর্ঘটনারও।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এসব ঝুকিপূর্ন খুটিগুলো অপসারণ করে নতুন খুটি স্থাপনের জন্য গুইমারার লাইনম্যান অহিদ ও মাটিরাঙ্গার আলমের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিভাগের উপজেলা আবাসিক প্রকৌশলী দফায় দফায় কয়েক লক্ষ টাকা নিয়েছে। কিন্তু এখনো ঝুকিপূর্ণ খুঁটিগুলোকে অপসারণ করেনি। এ সব খুঁটি গুলো বাস্তবিক অর্থে বিদ্যুৎ বিভাগের ব্যাপক অনিয়ম, অব্যবস্থাপনাসহ দুর্নীতির প্রতিচ্ছবি হয়ে দাঁড়িয়ে আছে।

এছাড়াও গ্রাহকদের মিটার না দেখে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল দেওয়া ও নেওয়ার হয়রানী করা ও মিটার রিডিং এর সাথে বিদ্যুৎ বিলের গরমিল থাকলেও তার কোন সমাধান পাচ্ছে না গ্রাহকরা। অভিযোগ উঠেছে গুইমারার লাইনম্যান অহিদ একই স্থানে দীর্ঘ দিন অবস্থান করে অনিয়ম-দুর্নীতি করে গড়েছে টাকার পাহাড়। যে টাকায় এ উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে জায়গা-জমিও ক্রয় করারও জনশ্রুতি রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এ অনিয়মের বিষয়ে লাইনম্যান অহিদের বক্তব্য নিয়ে চাইলে তাকে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের উপজেলা আবাসিক প্রকৌশলী মো: আবু হানিফ বলেন, আমি এই বিষয়ে অবগত নয়, তবে বিষয়টা আমি দেখছি।