উপজেলা প্রতিনিধি । হিলরিপোর্ট

কাপ্তাই: রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় করোনা রুখতে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মহাসড়কে জীবাণুনাশক টানেল স্থাপন করেছেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন। আর মঙ্গলবার (১৬জুন) দুপুরে এই মহতি কার্যক্রমটির উদ্বােধন করেন, রাঙামাটি আসনের সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার।

কার্যক্রমটির উদ্বোধনকালে এমপি দীপংকর বলেন, পুরো পৃথিবীকে করোনা গ্রাস করে নিয়েছে। আমরা সেই থাবায় পড়েছি। করোনা থেকে বাঁচতে হলে হতে হবে সচেতন। এইজন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

এমপি আরও বলেন, উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নাছির যে মহতি কার্যক্রমটি পরিচালনা করছেন তা সত্যি প্রশংসার দাবিদার। নাছির মতো করে সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে খুব সহজে করোনা মোকাবিলা করা সহজ হবে।

জীবানুনাশক টানেল স্থাপনকারী কাপ্তাই উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন বলেন, কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্র, কর্ণফুলি পেপার মিলস, পর্যটন এলাকাসহ নানা কারনে কাপ্তাই একটি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা। এই এলাকায় প্রতিদিন দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের আগমন ঘটে। তাই সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি ও করোনার বিস্তার রোধে তিনি স্বপ্রণোদিত হয়ে এই উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

এদিকে ভাইস চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন ব্যক্তিগত উদ্যােগে গত ২জুন চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কের ষ্টিল ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় প্রশান্তি পর্যটন কমপ্লেক্সের সামনে স্বয়ংক্রিয় ষ্প্রে মেশিনের সাহায্যে জীবানুনাশক টানেল স্থাপন করেছিলেন।প্রতিদিন শত শত যানবাহনে এই স্প্রে করা হচ্ছে। এই কাজে ইতিমধ্যে যাত্রী সাধারনের প্রশংসা কুঁড়াচ্ছেন তিনি।

এইসময় রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য প্রকৌশলী থোয়াইচিং মং মারমা, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজুল হক, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন, কাপ্তাই থানার ওসি নাসির উদ্দীন উপস্হিত ছিলেন।

জানা যায়, ২১টি স্বয়ংক্রিয় ষ্প্রে মেশিনের সাহায্যে প্রতিদিন ব্লিচিং পাউডার ও হাইড্রোজেন পার অক্সাইড মিশ্রিত ৫ হাজার ছয়শ লিটার জীবানুনাশক ছিটানো হচ্ছে। এই প্রকল্প স্থাপন করতে তার আনুমানিক ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। পাম্পের সাহায্যে পানি উত্তোলন, ক্যামিকেল মিশ্রন, রক্ষণা বেক্ষন ও বিদ্যুৎ বিল বাবদ উদ্দ্যেক্তার প্রতিদিন প্রায় ১৫০০ টাকা খরচ হয়।