॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটিতে জেলা পর্যায়ে আন্তঃ প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০১৯ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৮জানুয়ারী) বিকেলে স্থানীয় চিংহ্লামং মারী স্টেডিয়ামে সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলার ১০ উপজেলায় অনুষ্ঠিত বিভিন্ন বিষয় ও ইভেন্টে বিজয়ী শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ খোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ রবিউল আলম, সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ত্রিরতন চাকমা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন- শিক্ষার্থীরা পড়ালেখার পাশাপাশি তাদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে অনুশীলন ও চর্চা করলে শারীরিক ও মানসিকভাবে সত্য ও সুন্দরকে ধারণ করতে শিখবে। তাদের এই সুযোগ করে দেওয়া অভিভাবক, শিক্ষক সবার মিলিত দায়িত্ব ও কর্তব্য। তিনি বলেন, এগুলো করতে পারলে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনার পাশাপাশি সংস্কৃতি ও ক্রীড়াচর্চার মাধ্যমে একটি সুন্দর সমাজ গঠনের সুযোগ পাবে। এর ফলে পরবর্তী সময়ে তারা নেতিবাচক বা ক্ষতিকারক কোনো কিছুর সঙ্গে জড়িত হবে না। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার। শিক্ষার উন্নয়নে বিনামূল্য বই বিতরণ, শিক্ষা বৃত্তি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ’সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, সরকার পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত মানুষের কল্যাণে খুবই আন্তরিক বলেই নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধ করতে তাদের নিজস্ব ভাষায় পাঠ্য বই বিতরণ করছে। শিক্ষার্থীদের মাতৃভাষায় সঠিকভাবে শিক্ষা প্রদান করার জন্য জেলা পরিষদ হতে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। তিনি মন্তব্য করেন, এটি আমাদের জন্য একটি বড় পাওয়া এবং এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।

চেয়ারম্যান প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মধ্য থেকে বিভাগীয় ও জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগিদের জেলা পরিষদ হতে আর্থিক অনুদান দেওয়ার ঘোষণা দেন।

পরে জেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ইভেন্ট ও বিষয়ে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার ও সনদ প্রদান করেন অতিথিরা।