॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটিতে ধানের শীষের পক্ষে প্রচারণা চালিয়েছে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে জেলা শহরের দলীয় কার্যালয় থেকে এ প্রচারণা শুরু করা হয়। প্রচারণায় ছাত্রদলের নেতৃত্ব প্রদান করেন- জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ফারুক আহম্মেদ সাব্বির।

এসময় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি খোরশেদুল ইসলাম রাজু, মানিক আহম্মেদ, আবু সুফিয়ান রেজা, সেলিম সুমন, তারেক আহম্মেদ, সি: যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রনি, জেলা যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক ফজলুল ইসলাম, অলি আহাদ, মাসুদ পারভেজ, সেকান্দার আলী রাসেল, মো: সাজ্জাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আরজ হোসেন সুমন, প্রচার সম্পাদক আরজু, দপ্তর সম্পাদক মো: হাবিবুর রহমান হাবিব, সদর থানা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান জুয়েল, সি: যুগ্ম সম্পাদক মো: শাহজাদা, সদর থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: কামাল হোসেন, যুবদল নেতা মো: দুলাল, মো:শাবু মো: পিন্টা সহ ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দগণ।

ছাত্রদলের এসব নেতৃবৃন্দ ধানের শীষের প্রচারনা উপলক্ষ্যে মিছিল ,লিফলেট বিতরণ, এবং সমাবেশ করে। সমাবেশে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ফারুক আহম্মেদ সাব্বির বলেছেন- সারাদেশে ধানের শীষের গণ জোয়ার উঠেছে, তাই আওয়ামীলীগ দমন পীড়ন বাড়িয়ে দিয়েছে। তারা ইশতেহার দিয়েছিলেন ১০ টাকায় চালের কেজি জনগনকে দিবেন অথচ চালের কেজি ৬০ টাকায় তুললেন।

ঘরে ঘরে চাকরী দেওয়ার কথা বললেন অথচ চাকরীর দাবীতে রাস্তায় নামলে হাতুড়ী দিয়ে পিটিয়ে মেরুদন্ডের হাড় ভেঙ্গে দিলেন। জনগন আওয়ামীলীগকে চিনে গিয়েছে তারা মুখে মধুর কথা বললেও তাদের অন্তরে বিষ। আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে মিরপুরে বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান ও এই দেশের সংবিধান প্রণেতা ড.কামাল হোসেনের গাড়িতে হামলা ও এই দেশের আকাশে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন কারী আসম আব্দুর রবের উপরসহ ঐক্য ফ্রন্টের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করে আওয়ামীলীগ প্রমাণ করলো তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরপন্থী সরকার।