॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রাঙামাটিতে বিশ্ব রেড ক্রিসেন্ট দিবস পালিত হয়েছে । দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার ( ৮মে) সকালে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাঙামাটি ইউনিটের উদ্যোগে র‌্যালী, আলোচনাসভা, ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

একইদিন সকালে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইট রাঙামাটি ইউনিট কার্যালয়ে জাতীয় ও রেড ক্রিসেন্টের পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় দিবসের কার্যক্রম। সকাল ৯টায় শহরের চারুকলা একাডেমীর সামনে থেকে বের করা হয় বর্ণাঢ্য র‌্যালী। র‌্যালীটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে গিয়ে শেষ হয়।

পরে শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু। রেড ক্রিসেন্ট রাঙামাটি ইউনিটের চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউনিটের সেক্রেটারী মাহফুজুর রহমান, বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাঙামাটি চেম্বর অব কমার্সের সভাপতি বেলায়েত হোসেন ভুঁইয়া, রাঙামাটি ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক দিদারুল আলম।

ইউনিট কার্য নির্বাহী সদস্য এনএম জাহাঙ্গীর এর সঞ্চালনায় এ সময় আরো বক্ত্য রাখেন ইউনিট কার্য নির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ সোলায়মান, রেজাউল করিম রেজা ও উপ যুব প্রধান রানা দে।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ফিরোজা বেগম চিনু বলেন, মানবতার জন্য রেড ক্রিসেন্ট এর জন্ম হয়েছে। এটি একটি অরাজনৈতিক ও মানবতাবাদি সংগঠন। যেখানে দূর্যোগ, যেখানে মানবতার বিপর্যয় সেখানে রেড ক্রিসেন্ট দলমত নির্বিশেষ দূর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ায়।

গত বছর রাঙামাটিতে ভয়াবহ পাহাড় ধসের পর দূর্গত মানুষের পাশে সরকারের পাশাপাশি রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্ট এগিয়ে এসেছে। রাঙামাটি একটি দূর্যোগপুর্ণ এলাকা উল্লেখ করে তিনি বলেন এ অঞ্চলে রেড ক্রিসেন্ট আন্দোলনকে শক্তিশালী করতে হবে। প্রাকৃতিক ও মানবসৃষ্ট যে কোন দূর্যোগে রেড ক্রিসেন্ট আরো শক্তিশালী ভুমিকায় এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

আলোচনাসভা শেষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ও সহ শিক্ষা কার্যক্রমের আওতায় বিভিন্ন স্কুলের প্রাথমিক চিকিৎসায় প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে সার্টিফিকেট বিতরণ করেন অতিথিরা। পরে বিশ্ব রেড ক্রিসেন্ট দিবসের কেক কাটা হয়।