॥ মঈন উদ্দীন বাপ্পী ॥

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগের সভাপতি বৃষকেতু চাকমাকে গুলি করে হত্যার হুমকি দেওয়ার প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার (২১জানুয়ারী) সকালে বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগের উদ্যোগে জেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সন্মেলনের মাধ্যমে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

সংবাদ সন্মেলনে উপজেলা আ’লীগের নেতারা বলেন, আমাদের নেতা বৃষকেতু চাকমাকে যারা গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে তাদের অভিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দ্রুত শাস্তি দিতে হবে। পাহাড়ের খুনী সন্ত্রাসীদের কাছে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে, রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী কেউ নিরাপদ নয়। এসব সন্ত্রাসীদের কারণে পাহাড়ের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হচ্ছে। মা হারাচ্ছে তার সন্তানকে, স্ত্রী হারাচ্ছে তার স্বামীকে। তাদের আর ছাড় দেওয়া যাবে না। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। তাদের সমুচিত দেওয়ার সময় হয়েছে।

এসব নেতারা আরও বলেন, যেখানে একজন জনপ্রতিনিধি নিরাপদ নয়, সেখানে আমরা সাধারণ মানুষ কিভাবে নিরাপদে থাকি?। এসময় নেতারা অতি দ্রুত পাহাড় থেকে সন্ত্রাসীদের সমূলে ধ্বংস করার জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানান।

সংবাদ সন্মেলনে বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন আল মামুুনের সভাপতিত্বে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজী কামাল উদ্দীন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি প্রিয়নন্দ চাকমা, বাঘাইছড়ি পৌর আ’লীগের সভাপতি জমির উদ্দীন এবং আমতলী ইউনিয়ন আ’লীগের চেয়ারম্যান রাসেল চৌধুরীসহ সংগঠনটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

এরপর আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে একটি মানববন্ধন করেছে দলটির নেতা-কর্মীরা।

গত ১৪জানুয়ারী সকালে, রাতে এবং ১৫জানুয়ারী রাতে চেয়ারম্যান বৃষকেতুর মুঠোফোনে একটি অজ্ঞাত নাম্বার থেকে একাধিক ক্ষুদে বার্তা পাঠানোর মাধ্যমে গুলি করে মেরো ফেলার হুমকি প্রদান করা হয়। এরপর ১৭ জানুয়ারী শুক্রবার রাতে বাঘাইছড়ি উপজেলার আমতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাসেল চৌধুরী বাদী হয়ে বাঘাইছড়ি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।

ঘটনাটির প্রতিবাদে বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগ গত ১৮জানুয়ারী বাঘাইছড়ি এলাকায়ও সংবাদ সন্মেলনের মাধ্যমে প্রতিবাদ এবং বিক্ষোভ মিছিল করেছে।