মঈন উদ্দীন বাপ্পী । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি বলেন-পার্বত্যাঞ্চলের পর্যটন উন্নয়নে বড় বাঁধা অবৈধ অস্ত্র। এরপরও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় সন্ত্রাসবাদ কিছুটা কমেছে। মঙ্গলবার (২৭সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা পরিষদের আয়োজনে পরিষদের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত বিশ্ব পর্যটন দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

পর্যটন শিল্পে খাগড়াছড়ি, বান্দরবান এগিয়ে গেছে উল্লেখ করে এমপি বলেন- রাঙামাটিতে কুতুব বেশি। যে কারণে পর্যটনের উন্নয়ন অনেক কম।

এমপি দীপংকর আরও বলেন- আগামী ১০বছরের মধ্যে সাজেকের নাম মানুষ ভুলে যাবে। যেখানে-সেখানে অপরিকল্পিত হোটেল-মোটেল এবং ময়লা-আবর্জনা পরিবেশ দূষণ করছে এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বিলীন হযে যাচ্ছে। এইজন্য সাজেকের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বাঁচাতে হলে সুষ্ঠু পরিকল্পনা জরুরী এবং যত্রতত্র হোটেল-মোটেল তৈরি থেকে বিরত থাকতে হবে।

এমপি বলেন- কাপ্তাই হ্রদ দূষণ রোধে আমরা আবারও ব্যবস্থা গ্রহণ করবো অতি শিগগরই। রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে এগিয়ে নিতে হলে সকলে মিলে কাজ করতে হবে তাহলে রাঙামাটিও পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে উঠবে।

এর আগে দিবসটি উপলক্ষ্যে শহরের হ্যাপীর মোড় এলাকা থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা পরিষদের প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। এরপর পাঁয়রা উড়িয়ে দিবসটির শুভ সূচনা করেন অতিথিরা।

জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন- রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, জেলা পরিষদের মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- জেলা পরিষদের সদস্য ও পর্যটন বিষয়ক কমিটির আহবায়ক অনুচিং মারমা।