স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: আগামী ১৪ফেব্রুয়ারী পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৯টি ইস্তেহার ঘোষণা করেছে আ’লীগের মেয়র প্রার্থী আকবর হোসেন চৌধুরী। শুক্রবার (০৪ ফেব্রুয়ারী) সকালে জেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সন্মেলনের মাধ্যমে এ ইস্তেহার ঘোষণা করেন তিনি।

ঘোষিত ইস্তেহার এর মধ্যে- একহাজার আসন বিশিষ্ট রাঙামাটি পৌর অডিটরিয়াম নির্মাণ, ফিসারী বাধ রক্ষা ও সৌন্দয্য বর্ধন করন (যদি হস্তান্তর করা হয়), শহরের বাইরে পরিবেশ বান্ধব ডাম্পিং গ্রাউন্ড নির্মাণ, পৌর এলাকায় ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ, পৌর এলাকায় ১০টি স্থানে ফ্রি ওয়াইফাই জোন স্থাপন, পৌর এলাকায় গরিব শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান, নিম্ন আয়ের মানুষদের জন্য ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প, ইয়ুথ আইটি সেন্টার ও আইটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র চালুকরণ,স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে এ্যাম্বুলেন্স সেবা , বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে শহরকে সবুজায়ন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় আশ্রয় কেন্দ্র স্থাপন, শহরকে সোলার প্যানেলের আওতায় এনে সিসিটিভির মাধ্যমে সেবা দেয়া, নাগরিক সেবা বৃদ্ধির জন্য ওয়ান স্টেপ অনলাইন কল সেন্টার স্থাপন, শহরকে মাদকমুক্ত করা, শহরের গুরুত্বপুর্ণ স্থানে কিচেন মার্কেট নির্মাণ, শহরে এলাকাভিত্তিক নিরাপত্তা গেইট নির্মাণ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নামে বিভিন্ন সড়কের নামকরণ, শহরের বিভিন্ন স্থানে ডিজিটাল জায়ান্টস্কিন স্থাপন এবং বিগত সময়ে অসমাপ্ত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন।

বর্তমান মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমাদের দলে কোন বিভেদ নেই। আমার মার্কা নৌকা। দলীয় প্রতীক পেয়েছি। যিনি বিদ্রাহী প্রার্থী তার বিরুদ্ধে দল সিন্ধান্ত গ্রহণ করবে।

মেয়র আকবর হোসেন আরও বলেন, আমার এলাকায় কোন ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্র নেই। শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। সেনা মোতায়েনের কোন প্রয়োজন মনে করছি না।

তিনি জানান, ইভিএম যেহেতু নতুন তাই মানুষ উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে আসবেন। কোন সমস্যা হবে না।

এসময় রাঙামাটি জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, হাজী কামাল উদ্দীন, সাধারন সম্পাদক হাজী মুছা মাতব্বর, পৌর আ’লীগের সভাপতি মো. সোলায়মান, সাধারন সম্পাদক মনসুর আলীসহ দলটির গুরুত্বপূর্ণ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।