স্টাফ রিপোর্টার । হিল রিপোর্ট

রাঙামাটি: আসন্ন ১৪ফেব্রুয়ারী রাঙামাটি পৌরসভার নির্বাচনে ভোটের মাঠে এইবার সেনাবাহিনীর উপস্থিতি থাকছে না। তবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করবেন, পুলিশ, বিজিবি এবং র‌্যাপিট এ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব)। শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন, রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) আরিফুর রহমান।

এনডিসি আরিফুর রহমান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ভাবে সম্পাদন করার লক্ষ্যে ১২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে দায়িত্ব দিয়েছেন জেলা প্রশাসন। এছাড়া ভোটগ্রহণ প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

রাঙামাটি সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ বলেন, পুলিশ-আনসার এর পাশাপাশি নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবে র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরাও। এইজন্য ৭০০ পুলিশ প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রতিটি কেন্দ্রে ৭জন পুলিশ, ৯জন আনসার সদস্য সার্বক্ষণিকভাবে দায়িত্ব পালন করবেন। পাশাপাশি পুলিশের ১১ টি মোবাইল টীম এবং ১১ টি স্ট্রাইকিং ফোর্স নির্বাচনে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় কাজ করবে। এছাড়াও র‌্যাব ও বিজিবি’র সদস্যরাও পুরো পৌর শহরে টহল দিবেন।

এদিকে সারাদেশের ন্যায় পাহাড়ি জেলা রাঙামাটিতেও প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করে ভোট গ্রহণ। তাই প্রার্থী, ভোটার সকলের যেমন আগ্রহরে শেষ নেই তেমনি রয়েছে উৎকণ্ঠাও।

রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে ৩১টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এইজন্য নির্বাচনে ৩১জন প্রিজাইডিং অফিসার, ২০১জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ৪০২জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে ৫মেয়র প্রার্থী, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪১জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১৯জন প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। ৩১টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৬২হাজার ৯১৩জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে ৩৪হাজার ২৫২জন পুরুষ ভোটার এবং ২৮হাজার ৬৭১জন নারী ভোটার রয়েছেন।