॥ রাজস্থলী প্রতিনিধি ॥

চট্টগ্রাম রাঙুনিয়া উপজেলার ১নং রাজানগর ইউনিয়ন ও ১৩ নং ইসলামপুর ইউনিয়নে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের ঘোষিত লক ডাউনের কারণে শত শত গরীব দুস্থ পরিবার ও দিন মজুরদের পাশে দাঁড়ালেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী৷

গত কয়েকদিন উপজেলার ইসলামপুর ও রাজানগর ইউনিয়নে ত্রান বিতারণ করছেন তিনি। পাশাপাশি ইসলামপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছা সেবকলীগের সভাপতি আরিফ মঈনুল ইসলাম চৌধুরী (সওকত) এ কাজে অংশ নিয়েছেন।

৩০ মার্চ থেকে রাজানগর ও ইসলামপুর ইউনিয়নের ছিন্নমূল দুস্থ পরিবারে ঘরে ঘরে ত্রান বিতরণ করা হবে যেটা আগামী কয়েকদিন অব্যহত থাকবে বলে জানান আরিফ মঈনুল ইসলাম চৌধুরী(সওকত)।

কয়েকটি টীমে বিভক্ত হয়ে রাজানগর, শিয়ালবুক্কা,বরণছড়ি,ও ইসলামপুরের বিভিন্ন এলাকায় ত্রান কার্যক্রম পরিচালনা করেন, ইসলামপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি কামরুল ইসলাম চৌধুরী (বাবলা), রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মুবিন চৌধুরী, রাজানগর ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা রেজভী চৌধুরী, তৌহিদ চৌধুরীর ছোট ভাই ফরহাদ চৌধুরী ও রোমান চৌধুরী।

গত দুইদিনে প্রায় ২৫০টি পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। করোনা ভাইরাস সংক্রমন ঠেকাতে লক ডাউন করার ফলে শতশত গরীব দুস্থ পরিবারে খাবার সংকট দেখা দিয়েছে এমন অবস্থায় তৌহিদ চৌধুরী তার বড় ভাই সওকত চৌধুরী তাদের পরিবারের পক্ষে ব্যক্তিগত উদ্দ্যেগে ইসলামপুর ও রাজানগরের ছিন্নমূল দুস্থ পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়ায়। গরীব দিনমজুর কেটে খাওয়া মানুষগুলোর পরিবারে আগামী কয়েকদিনের খাবার পেয়ে ভীষণ খুশী।

রাজানগরও ইসলামপুরে অনেক বিত্তবান পরিবার রয়েছে যারা চাইলে তৌহিদ ও সওকতের মতো এগিয়ে আসতে পারে। স্থানীয়রা মনে করেন তৌহিদ চৌধুরী ও সওকত চৌধুরীর পরিবারে মহৎ উদ্দ্যেগকে অনুকরণ করে বাকীরাও এগিয়ে আসবেন।

ত্রান বিতারণের সওকত চৌধুরী গরীব দুস্থ পরিবারের সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন আমাদের পরিবার সবসময় আপনাদের পাশে থাকবে প্রয়োজনে রাঙুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে তালিকা তৈরি করে দেওয়া হবে যাতে করে কোন মানুষ খাবারের কষ্ট না পাই।

তৌহিদ চৌধুরী বলেন আমাদের রাঙুনিয়া গন-মানুষের নেতা জননেতা তথ্যমন্ত্রী ঘোষনা দিয়েছেন, রাঙুনিয়ার কোন পরিবার খাবারের কষ্ট পাবেনা। তিনি ইতিমধ্যে সরকারি অনুদান ছাড়াও নিজস্ব তহবিল থেকে সাধারণ মানুষদের ত্রান বিতরণ করে যাচ্ছেন। আমরাও যদি পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্দ্যেগে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ায় তাহলে মন্ত্রীর ঘোষনা বাস্তবায়ন সহজ হবে।