মঈন উদ্দীন বাপ্পী । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা বলেন- শেখ হাসিনার অপর নাম উন্নয়ন। বাংলার উন্নয়নে, বাঙালী জাতিকে সারা বিশে^র কাছে মাথা উঁচু করে তুলে ধরতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে স্বপ্ন দেখেছিলো তা বাস্তবায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন। শনিবার দিনের বিভিন্ন সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড’র কোটি টাকার ৫টি উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চেয়ারম্যান বলেন-মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মেনে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড পাহাড়ের আনাচে-কানাচে উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন। স্কুল-কলেজ সেতু, কালভার্ট, মসজিদ, মন্দির সবখানে উন্নয়ন বোর্ড সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। অন্ধকার পাহাড়ে আলোর বর্তিকা হিসেবে কাজ করছে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া প্রতিষ্ঠানটি।

পাচউবো’র চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা আরও বলেন- অতীতে অনেক সরকার এসেছে, অনেক সরকার গেছে। আপনারা তুলনা করুন। কারা দেশের উন্নয়ন করে, কারা লুঠপাটের রাজনীতি করে। পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়ন দেখলে আপনারা বুঝে যাবেন এ অঞ্চলে কি পরিমাণ উন্নয়ন হয়েছে।

নিখিল কুমার চাকমা বলেন-পাহাড়ের শান্তি উন্নয়নে একমাত্র আওয়ামীলীগ সরকার কাজ করেছে এবং এখনো শান্তি আনয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা সেই উন্নয়নের সহযাত্রী। তাই বঙ্গবন্ধুর সৈনিকদের উচিত, সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে সামনের দিনগুলিতে একটি উন্নতশীল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করি।

পাচউবো’র পক্ষ থেকে জানানো হয়- ৫কোটি টাকার জেলার কেন্দ্রীয় কবরস্থান থেকে হাসপাতালের সংযোগ ব্রিজ নির্মাণ, ৪০লাখ টাকার ইয়ুথ স্পোটিং ক্লাবের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্তকরণ, ৪০লাখ টাকার ডায়াবেটিক সমিতির ভবন উর্দ্ধমুখী সম্প্রসারণ, ৪০লাখ টাকার কাঠালতলী জামে মসজিদের সম্প্রসারণ এবং ৩০লাখ টাকার শ্রী শ্রী সার্বজনীন দুর্গা মন্দিরের নাট মন্দির নির্মাণ কাজসহ সর্বমোট ৬কোটি ৫৫লাখ টাকার প্রকল্পের কাজ চলমান। আগামী অর্থ বছরের আগে এসব উন্নয়নমূলক কাজ সমাপ্ত করা হবে।

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী তুষিত চাকমা, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেলসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।