মঈন উদ্দীন বাপ্পী । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: এসেছে নতুন বছর। বিদায় নিয়েছে পুরনো বছর। নতুন বছরে সকলের আশা সবুজ পাহাড়ে শান্তির বারতা ছুঁয়ে যাক। হানা-হানি বন্ধ হোক। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সকলে কাঁধে কাঁধ মিলে দেশের স্বার্থে এক হয়ে কাজ করবে। সবুজ পাহাড় থেকে শান্তির সুবাতাস ছড়িয়ে পুরো দেশ জুড়ে এটাই সকলের প্রত্যাশা।

পুরনো বছর ২০২০ রাঙামাটির ইতিহাসে যা ঘটে গেলো:

২০২০সালের ৮জানুয়ারী মোটরসাইকেল চালক বাচিমং মারমাকে (৩২) গুলি করে হত্যার মধ্যে দিয়ে পাহাড়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। স্থানীয়দের ধারণা, এ হামলার সঙ্গে সন্তু গ্রুপের নেতৃত্বাধীন পিসিজেএসএস’র সন্ত্রাসীরা জড়িত রয়েছে।

রাঙামাটির লংগদু-বাঘাইছড়ি সীমান্তবর্তী এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের গুলিতে পান্ডব চাকমা (৪০) নামে জেএসএস সংস্কারের (এমএন লারমা গ্রুফ) এক কর্মী নিহত ও অপর এক কর্মী আহত হয়েছেন। রোববার (১৯ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার আটারকছড়া ইউনিয়নের বান্দরতলা ছড়া নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানায়।

রাঙামাটির লংগদু-বাঘাইছড়ি সীমান্তবর্তী এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের গুলিতে পান্ডব চাকমা (৪০) নামে জেএসএস সংস্কারের (এমএন লারমা গ্রুফ) এক কর্মী নিহত ও অপর এক কর্মী আহত হয়েছেন। রোববার (১৯ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার আটারকছড়া ইউনিয়নের বান্দরতলা ছড়া নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানায়।

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় উসুইপ্রু মারমা (৩০) নামে যুবলীগের এক নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। বুধবার (১ এপ্রিল) দিনগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার চিৎমরম ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের হেডম্যান পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। উসুইপ্রু মারমা ৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় সন্তু গ্রুপের পিসিজেএসএস’র কালেক্টর প্রিমেক্স চাকমাকে (৪০) গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। সোমবার (০৮ জুন) সকালে উপজেলার পাগলী পাড়া এলাকায় গুলিবিদ্ধ মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় সুরেশ চাকমা (৬৫) নামে এক চায়ের দোকানদারকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার দুর্গম ঘিলাছড়ি ইউনিয়নের রাবার বাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটির রাজস্থলীতে গুলি করে জালাল উদ্দিন (২৮) নামে এক মাছ ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (০৫ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার বাজারপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় সন্তু গ্রুপের নেতৃত্বাধীন পিসিজেএসএসের কালেক্টর বসন্ত তঞ্চঙ্গ্যা ওরফে দুর্জয় তঞ্চঙ্গ্যাকে (৩৫) গুলি করে হত্যা করেছে একদল সন্ত্রাসী। রোববার (১১ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার দুর্গম রাইখালী ইউনিয়নের কারিগর পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় সেনাবাহিনীর টহল দলের ওপর আকস্মিক গুলি চালিয়েছেন ইউপিডিএফের (প্রসিত গ্রুপ) সশস্ত্র চাঁদাবাজরা। এসময় উভয়পক্ষের গুলি বিনিময়ে ইউপিডিএফের দুই সশস্ত্র চাঁদাবাজ নিহত হয়েছেন।এতে আহত হয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীর এক সদস্য। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার বুড়িঘাট ইউনিয়নের রউফ টিলা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি একে-২২ রাইফেল (এসএমজি) উদ্ধার করা হয়। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় দু’পক্ষের বন্দুকযুদ্ধের সময় রতন চাকমা রতœ (২২) নামে জেএসএস সংস্কার সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের এক নেতা নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) দুপুর পৌনে দুইটার দিকে উপজেলার পৌর শহরের বাবুপাড়া এলাকায় সন্তু গ্রুপের জেএসএস এবং জেএসএস সংস্কারের মধ্যে এ বন্দুকযুদ্ধ হয়। রতন চাকমা জেএসএস সংস্কার সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ কাচালং কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্যা ইউনিয়নের গর্জনিয়া এলাকায় দুই পিসিজেএসএস কর্মীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার (১১ নভেম্বর) ভোরে এ হত্যাকান্ড ঘটে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। নিহতরা হলেন রাজস্থলী উপজেলার ছাখ্যং পাড়ার মৃত কালাচান তঞ্চঙ্গ্যার ছেলে সুভাষ তঞ্চঙ্গ্যা (৪৫) ও গর্জনিয়া পাড়ার রনজিত কার্বারির ছেলে ধনঞ্জয় তঞ্চঙ্গ্যা (৩৫)। তারা উভয়েই জেএসএস এর সমর্থক বলে জানা গেছে।

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নয়ন চাকমা ওরফে সাজেক চাকমা (৩৫) নামে এক ইউপিডিএফ প্রসিত গ্রুপের সশস্ত্র সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৩ ডিসেম্বর) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার দুর্গম সাবেক্ষং ইউনিয়নের ১৯ মাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার ৩৪ নম্বর রূপকারী ইউনিয়নের পাকুয্যছড়ি এলাকায় রতন প্রিয় ধীমান চাকমা (৩৫) নামে জেএসএস (এম এন লারমা) দলের এক সমর্থককে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। রোববার (০৬ডিসেম্বর) ভোরে এ ঘটনা ঘটে। রতন প্রিয় নানিয়াচর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রগতি চাকমার বডিগার্ড ছিলেন বলে জানা গেছে। তিনি পাকুয্যছড়ির বৌদ্ধ মঙ্গল চাকমার ছেলে।

রাঙামাটি সদরের মগবান ইউনিয়নের দুল্লাছড়ি এলাকায় সেনাবাহিনীর টহল দলের সঙ্গে জেএসএস সন্ত্রাসীদের গুলিবিনিময় হয়েছে। এতে একজন সশস্ত্র সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে আইএসপিআর। সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রাঙামাটির দুল্লাছড়ি এলাকায় সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) জেএসএস (সন্তু) দলের সন্ত্রাসীরা কাপ্তাই লেকে জেলেদের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে জীবতলী সেনা ক্যাম্পের একটি বিশেষ টহলদল ওই এলাকায় যায়। টহল পরিচালনাকালে একটি নৌকা থেকে কয়েকজন সশস্ত্র সন্ত্রাসীকে জেলেদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করছে দেখতে পায় নিরাপত্তা বাহিনীর টহল দল। এ সময় টহলদল সন্ত্রাসীদের নৌকাটিকে আটকের চেষ্টা চালালে সন্ত্রাসীরা টহল দলকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে পালানোর চেষ্টা করে। আত্মরক্ষার্থে টহল দলের সদস্যরাও পাল্টা গুলি করে।

নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতিরোধে টিকতে না পেরে সন্ত্রাসীরা লেকে ঝাঁপ দিয়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহল দল সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত নৌকাটি তল্লাশি করে সেখানে বিল্টন চাকমা নামে এক সন্ত্রাসীর গুলিবিদ্ধ মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। নৌকাটি থেকে তিন রাউন্ড গুলি ভর্তি একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রের বরাত দিয়ে আইএসপিআর আরও জানায়, বিল্টন চাকমা জেএসএস (সন্তু) দলের একজন সক্রিয় সদস্য এবং রাঙ্গামাটি জেলার বরাদম, জীবতলী ও মগবান এলাকার প্রধান চাঁদাবাজ হিসেবে পরিচিত। তার নামে থানায় খুনসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এদিতে পুরো বছরে আত্মহত্যা, সড়ক দুর্ঘটনায়, কাপ্তাই হ্রদে ডুবে এবং গুপ্ত হামলায় ২৭জন মারা গেছেন। এছাড়াও বন্য হাতির আক্রমণে ০২জন এবং একজন যক্ষা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

অপরদিকে রাঙামাটির সাজেকে হাম রোগে ০৯জন শিশু মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছে ১৫৫জন শিশু। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ১৬জন। করোনা বেড়ে যাওয়ায় রাঙামাটিবাসীর দাবি উঠে, রাঙামাটি একটি পিসিআর ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা। আর সেই ডাকে সারা দিয়ে দেশের সর্ববৃহৎ শিল্পগোষ্ঠি বসুন্ধরা গ্রুপ রাঙামাটি পিসিআর ল্যাব প্রতিষ্ঠার জন্য ৬৯লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করে। গত ৬আগষ্ট রাঙামাটি সদর হাসপাতালে প্রধান অতিথি থেকে পিসিআর ল্যাবের উদ্বোধন করেন, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চলের (বেপজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান ও রাঙামাটি জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব পবন চৌধুরী।

রাঙামাটি পুলিশ সুপার আলমগীর কবির বলেন, জেলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ সদা তৎপর রয়েছে। যেখানে অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে পুলিশ তার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে অপরাধীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে। তবে একদিকে পাহাড়ি এলাকা অন্যদিকে পুলিশের প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের যথেষ্ট অভাব রয়েছে। তাই ইচ্ছে থাকলেও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যথা সময়ে ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না। যদি পুলিশের কাছে অভিযান পরিচালনার জন্য সরঞ্জাম থাকতো তাহলে পাহাড় থেকে সন্ত্রাসীদের উৎখাতে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া যেতো।