স্টাফ রিপোর্টার । হিলরিপোর্ট

রাঙামাটি: রাঙামাটির কাউখালী উপজেলায় স্ত্রী পুলুমা মারমা (৪০) তার স্বামী চিংসিইউ মারমাকে (৫০) কুপিয়ে হত্যা করেছে। রোববার (১৪জুন) দিনগত রাতে উপজেলার দূর্গম বেতবুনিয়া ইউনিয়নের মহাজন পাড়ায় স্বামীর অতিরিক্ত মদ্যপানকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় ইউপি সদস্য উসিখই মারমা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিক করে বেতবুনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মণিরুজ্জামান বলেন, পারবারিক কলহের জের ধরে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনাকারী স্ত্রীকে আটক করে কাউখালী থানায় খুনের দায়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং সোমবার সকালে রাঙামাটি আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আর মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাঙামাটি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে রাঙামাটির আরেক দূর্গম উপজেলা বাঘাইছড়িতে বেইলী ব্রীজের রিলিংয়ের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে নুরুর ইসলাম (৪৫) নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (১৫জুন) সকালে ঘটনাস্থল থেকে মরদহেটি উদ্ধার করে পুলিশ।

আত্মহত্যাকারী ব্যক্তি ওই উপজেলার কাচালং মডেল টাউন বেইলি ব্রীজ এলাকার মৃতঃ আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

নিহতের ছোট ভাই নুরুননব্বী বলেন, তার ভাই মাদকাসক্ত ছিলো। এর আগেও একবার ব্রীজ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হয়েছিলো।

তবে আগ্মহত্যাকারী নুরুল ইসলামের স্ত্রী জুলেখা বেগম দাবী করেন, তার শ্বশুর মৃত আব্দুর রাজ্জাকের মুক্তিযোদ্ধা সনদ বের করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে দুই লক্ষ টাকা খরচ করেছেন। পুরো টাকাটাই তিনি ধার দেনা করে যোগাড় করেছিলেন। তার শশুর মারা যাওয়ার পর সম্প্রতি পাওনা টাকার জন্য পাওনাদাররা নুরুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে তার বাবার কাছ থেকে পাওনা টাকার জন্য চাপ দিতে থাকে। মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে নুরুল ইসলাম আত্মহত্যার পথ বেচে নিয়েছেন বলে জানান।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমএ মঞ্জুর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাশ্ববর্তী জেলা খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা দায়ের করা হবে বলে যোগ করেন।